আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

সংখ্যা: ২০২তম সংখ্যা | বিভাগ:

আল বাইয়্যিনাত প্রতিবেদন: নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনি সৃষ্টির মূল, আল্লাহ পাক-উনার মুহব্বত-মা’রিফাতের মূল, উনাকে স্বীকার এবং মুহব্বত করা ঈমানের মূল। উনার প্রতি বিশুদ্ধ আক্বীদা না্‌জাতের মূল। তা’যীম-তাকরীম প্রদর্শন, আদেশ-নিষেধ পালন ও সুন্নতের অনুসরণ সন্তষ্টির মূল।
ইমামুল আইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, হাবীবে আ’যম, মুজাদ্দিদে আ’যম, সুলত্বানুন নাছীর, খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, আমীরুল মু’মিনীন, খলীফাতুল মুসলিমীন, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী তিনি বিশেষ আলোচনা মজলিসে মুবারক বয়ানে একথা বলেন।
ইমামে আ’যম, মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী তিনি বলেন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে স্বীকার করা, মুহব্বত করা এবং উনার প্রতি বিশুদ্ধ আক্বীদা ও হুসনে যন ব্যতীত কারো পক্ষে ঈমানদার ও হাক্বীক্বী মুসলমান হওয়া সম্ভব নয়। অথচ মুসলিম বেশ ধারণকারী সউদী ওহাবী, ইহুদী সরকার কালিমা শরীফ থেকে নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার নাম মুবারক বাদ দিয়ে দিয়েছে। তারা উনার প্রতি চরম বদ ও কুফরী আক্বীদা পোষণ করে থাকে। রওযা শরীফ যিয়ারতে মুসলমানদের নিরুৎসাহিত করে থাকে। নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার কৃত ইসলামী পঞ্চ ভিত্তির চতুর্থটি তথা ফরয হজ্জ নষ্ট করার জন্য, প্রতি বছর চাঁদের তারিখ হেরফের করে থাকে। এবারও অমাবস্যার দিন চাঁদের তারিখ ঘোষণা করে ২ কোটির বেশি হাজী ছাহেবের হজ্জ নষ্ট করেছে।
মুজাদ্দিদে আ’যম, মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী বলেন, মুসলমানদের জন্য শত সহস্র আফসুস, যে তারা পাঠ্য পুস্তকে কাফির, মুশরিক, ইহুদী-খ্রিস্টান, মজুসী, নাস্তিক মালউন, কাট্টা মুসলিম বিদ্বেষীদের জীবনী পাঠ্য করেছে এবং এগুলো মুসলমান ছাত্র-ছাত্রীদেরকে পড়তে বাধ্য করা হচ্ছে! অথচ, সৃষ্টির যিনি মূল, যাকে সৃষ্টি না করলে কোন কিছুই সৃষ্টি হতো না, আশরাফুল মাখলূক্বাত মানুষ সৃষ্টি হতো না, যার ওসীলায় কাফির থেকে মানুষ ঈমানদার হয় উনার সম্পর্কে মুসলমানদের সুস্পষ্ট কোন ধারণাই নেই।
কাজেই সরকারের জন্য ফরয-ওয়াজিব প্রত্যেক শ্রেণীতে উনার এবং হযরত উম্মুল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম, উনার মহা সম্মানিত আহলে বাইত শরীফ, খুলাফায়ে রাশিদীন, ছাহাবায়ে কিরাম, বিশেষ বিশেষ আওলিয়ায়ে কিরাম, মাযহাব ও ত্বরীকার ইমাম উনাদের জীবনী মুবারক অন্তর্ভুক্ত করা। উনাদের শানে উচ্চতর গবেষণার জন্য গবেষণা ও উচ্চতর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করা। উনাদের নাম মুবারকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, জেলা ও সন্তানের নামকরণ করা।
পবিত্র ঈদুল আদ্বহা তথা কুরবানীর ত্যাগের মহিমায় উজ্জীবিত হয়ে আসন্ন পবিত্র সাইয়্যিদে ঈদে আ’যম, সাইয়্যিদে ঈদে আকবর, সাইয়্যিদে ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উপলক্ষে নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-উনার সুমহান শান মান আলোচনা এবং তা শোনার জন্য সরকারিভাবে দেশজুড়ে একমাস ব্যাপী মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মাহফিলের ব্যবসন্তা করা। লোকজন যাতে এসব মাহফিলে অতি সহজে হাজির হয়ে মাহফিল শুনে নিজেদের ঈমান, আমল, আক্বীদা, বিশুদ্ধ করতে পারে, উনার প্রতি চরম পরম হুসনে যন ও মুহব্বত পোষণ করতে পারে সেজন্য ফ্রী যাতায়াতের ব্যবসন্তাসহ, তাবারুক ও সরকারি ভাতা ও চাকরিজীবীদের জন্য বেতনের সমপরিমাণ বোনাসের ব্যবসন্তা করা সরকারের জন্য ফরয ওয়াজিব। সরকারের উচিত এ বিষয়ে এখন থেকেই ব্যাপক প্রস্তুতি ও কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা এবং যথাশীঘ্র তা বাস্তবায়নের ব্যবসন্তা করা।

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

পৃথিবীর ইতিহাসে নজীরবিহীন অনন্তকালব্যাপী জারীকৃত পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার বিশেষ শান মুবারক ৬৩ দিনব্যাপী বিশেষ মাহফিল

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ