পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উপলক্ষে মুসলিম বিশ্বে আজ সাজ সাজ রব কোথায়?

সংখ্যা: ২০২তম সংখ্যা | বিভাগ:

ব্রিটেন রাজ পরিবারের বিয়েকে কেন্দ্র করে এত সাজ সাজ রব উঠলেও
আসন্ন সাইয়্যিদে ঈদে আ’যম, ঈদে আকবর পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু
আলাইহি ওয়া সাল্লাম উপলক্ষে মুসলিম বিশ্বে আজ সাজ সাজ রব কোথায়?

প্রিন্স উইলিয়াম ও তার বাগদত্তা কেট মিডলটনের বিয়েকে কেন্দ্র করে উৎসবের প্রস’তি নিচ্ছে ব্রিটেনের সর্বসাধারণ। বিয়ের উৎসব উপলক্ষে দিনটিতে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন।
সাপ্তাহিক ছুটির সঙ্গে মিলে বড় বন্ধ পড়ে যাওয়ায় ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হতে পারে- এমন আশঙ্কা সত্ত্বেও ব্রিটেনের সর্বসাধারণকে উৎসবে শামিল করতে ছুটি ঘোষণা করা হয় বলে জানায় সরকারি সূত্র। এদিকে বিয়ের দিনে লন্ডনের আকাশের শোভাবর্ধন করবে প্রিন্স উইলিয়ামের সম্মানে রাজকীয় বিমান বাহিনীর বিশেষ হেলিকপ্টার মহড়া।
উইলিয়াম ও কেটের বিয়েতে সর্বকালের সবচেয়ে বড় উৎসব করার প্রস’তি নেয়া হচ্ছে বলে জানায় ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম। প্রিন্স উইলিয়াম ও তার বাগদত্তা কেট মিডলটনের বিয়ের কারণে ব্রিটেনের অর্থনীতিতে ৫ বিলিয়ন পাউন্ডের প্রভাব পড়তে পারে।
তাদের মতে, উইলিয়ামের মা প্রিন্সেস ডায়নার বিয়ের চেয়ে বেশি জাঁকজমকপূর্ণ হবে। এদিকে বিয়ের ঘোষণা আসতে না আসতেই বিভিন্ন স্টাইল ম্যাগাজিনে কনে ও ভাবি প্রিন্সেস কেটের বিয়ের পোশাক নিয়ে জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়ে গেছে। বিলিয়নের অধিক মানুষের দৃষ্টি থাকা এ বিয়েতে কনের পোশাকের জন্য কেট রাজপরিবারের নিজস্ব
ডিজাইনার, না বাইরের কারো দ্বারস’ হবে তাই এখন আলোচ্য বিষয়।
আর এরই মধ্যে ব্রিটিশ রাজপরিবারের আলোচিত এ বিয়ে থ্রিজি প্রযুক্তির সাহায্য সরাসরি প্রদর্শনের ঘোষণা দিয়েছে বিশ্বের অনেক দেশের সিনেমা হলগুলো।
বলাবাহুল্য, অতীতের মত মুসলিম দেশগুলোও এতে পিছিয়ে থাকবে না। মুসলিম বিশ্বের সরকার প্রধানরাও এতে আগ্রহভরে অংশগ্রহণ করবে। এবং মুসলিম জনসাধারণ এ বিয়ের পোশাকসহ খুঁটিনাটি বিষয় আলোচনায় বিভোর থাকবে।
অথচ বিধর্মী হিসেবে কুরআন শরীফ-এর দৃষ্টিতে এরা নাপাক এবং জাহান্নামী।
অপরদিকে আর মাত্র দুই মাস পরেই আসছে সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, নূরে মুজাসসাম হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিলাদত শরীফ তথা ঈদে আকবর, ঈদে আ’যম পবিত্র ঈদে মীলাদুন নবী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।
কিন্তু সে প্রসঙ্গে মুসলিম বিশ্বের কোথাও কোনো আলোচনা, কোনো প্রস’তি, কোনো সরব প্রচারণা কিছুই নেই।
যা কেবল গভীর পরিতাপের বিষয়ই নয়; বরং এটাই মুসলমানদের বর্তমান দুরবস্থার মূল কারণ।

-মুহম্মদ মাহবুবুর রহমান

প্রসঙ্গ: কল্যাণমূলক রাষ্ট্রের ধারণা ও ক্বিয়ামত-এর তথ্য

বাংলাদেশে ৩ কোটি লোক দিনে ৩ বেলা খেতে পারে না। পুষ্টিমান অনুযায়ী খেতে পারে না ৮ কোটি লোক। ক্ষুধাক্লিষ্ট ও পুষ্টিহীন জনগোষ্ঠীর জন্য সরকারের নেই কোনো উদ্যোগ!

কুল-কায়িনাতের সর্বশ্রেষ্ঠ ইবাদত অনন্তকালব্যাপী জারিকৃত সুমহান পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ মাহফিল এবং জনৈক সালিকার একখানা স্বপ্ন

ব্রিটিশ আমলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন উপাচার্য রমেশ মজুমদার (আর.সি. মজুমদার) তার আত্মজীবনীতে উল্লেখ করেছে যে- (১) ঢাকা শহরের হিন্দু অধিবাসীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি চরম বিদ্বেষ পোষণ করতো; (২) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রমকে অঙ্কুরেই বিনষ্ট করতে এদেশীয় হিন্দু শিক্ষামন্ত্রী, ক্ষমতা পেয়েই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেতন অনেক কমিয়ে দিয়েছিল; (৩) এমনকি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কোর্টের (গভর্নিং বডির) সদস্য হয়েও সংশ্লিষ্ট স্থানীয় হিন্দুরা, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে কার্যক্রম চালাতে পিছপা হতো না। সুতরাং বাংলাদেশের আলোবাতাসে লালিত এসব মুশরিকরা যে দেশদ্রোহী, তা প্রমাণিত ঐতিহাসিক সত্য। ইতিহাসের শিক্ষা অনুযায়ী-ই এসমস্ত মুশরিকদেরকে এদেশে ক্ষমতায়িত করাটা অসাম্প্রদায়িকতা নয়, বরং তা দেশবিরোধিতা ও নির্বুদ্ধিতার নামান্তর

যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, খ্বলীফাতুল্লাহ, খ্বলীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুশ শরীয়ত ওয়াত তরীক্বত, মুহইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে মিল্লাত ওয়াদ দ্বীন, হাকিমুল হাদীছ, হুজ্জাতুল ইসলাম, রসূলে নু’মা, সুলত্বানুল আরিফীন, সুলত্বানুল আউলিয়া ওয়াল মাশায়িখ, ইমামুল আইম্মাহ, ক্বইয়ূমুয যামান, জাব্বারিউল আউওয়াল, ক্বউইয়্যুল আউওয়াল, সুলতানুন নাছীর, হাবীবুল্লাহ, জামিউল আলক্বাব, আওলাদুর রসূল, মাওলানা, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম উনার সুমহান তাজদীদ মুবারক