খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির

সংখ্যা: ২০৫তম সংখ্যা | বিভাগ:

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র

খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির

“ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদ-।”

 

কাদিয়ানী রদ!

(ষষ্ঠ ভাগ)

(কুতুবুল ইরশাদ, মুবাহিছে আয’ম, বাহরুল উলূম, ফখরুল ফুক্বাহা, রঈসুল মুহাদ্দিছীন, তাজুল মুফাস্সিরীন, হাফিযুল হাদীছ, মুফতিউল আ’যম, পীরে কামিল, মুর্শিদে মুকাম্মিল হযরতুল আল্লামা মাওলানা শাহ্ ছূফী শায়খ মুহম্মদ রুহুল আমীন রহমতুল্লাহি আলাইহি কর্তৃক প্রণীত “কাদিয়ানী রদ” কিতাবখানা (৬ষ্ঠ খ-ে সমাপ্ত) আমরা মাসিক আল বাইয়্যিনাত পত্রিকায় ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করছি। যাতে কাদিয়ানীদের সম্পর্কে সঠিক ধারণাসহ সমস্ত বাতিল ফিরক্বা থেকে আহ্লে সুন্নত ওয়াল জামায়াতের অনুসারীদের ঈমান-আক্বীদার হিফাযত হয়। আল্লাহ্ পাক আমাদের প্রচেষ্টায় কামিয়াবী দান করুন (আমীন)। এক্ষেত্রে তাঁর কিতাব থেকে হুবহু উদ্ধৃত করা হলো, তবে তখনকার ভাষার সাথে বর্তমানে প্রচলিত ভাষার কিছুটা পার্থক্য লক্ষণীয়)।

(ধারাবাহিক)

তিরমিজি শরীফ, ২/১৪৪ পৃষ্ঠা ;

قال حضرت ابو هريرة رضى الله تعالى عنه عن النبى صلى الله عليه وسلم فى السد قال يحفرونه كل يوم حتى اذا كادوا يخر قونه قال الذى عليهم ارجعوا فستخرقونه غدا قال فيعيده الله كامثل ما كان حتى اذا بلغ مدتهم واراد الله ان يبعثهم على الناس قال الذى عليهم ارجعوا فستخرقونه غدا انشاء الله واستثنى قال فيرجعون فيجدونه كهيئة حين تركوه فيخرقونه ويخرجون على الناس فيسبقون المياه وويفر الناس منهم فيرمون بسهامهم الى السماء فيرجع مخضبة بالدماء فيقولون قهرنا من فى الارض وعلونا من فى السماء قسوة وعلوا فيبعث الله عليهم نغفا فى افقائهم فيهلكون

“হযরত আবূ হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার থেকে ইয়াজুজ ও মাজুজের প্রাচীর সম্বন্ধে রেওয়ায়েত করিয়াছেন। তিনি বলিয়াছেন, ইয়াজুজ ও মাজুজ প্রত্যেক দিবস উহা খনন করিতে থাকে, এমনকি  তাহারা উহা প্রায় ভাঙ্গিয়া ফেলে। তাহাদের নেতা বলে, তোমরা প্রত্যাবর্তন কর, সত্বরেই কল্য তোমরা উহা ভাঙ্গিয়া ফেলিবে। তৎপরে আল্লাহ তায়ালা উহা পূর্ববৎ করিয়া দেন। এমনকি যখন তাহাদের মেয়াদ শেষ হইবে এবং আল্লাহ তায়ালা তাহাদিগকে লোকদিগের নিকট প্রেরণ করিতে ইচ্ছা করিবেন, তাহাদের নেতা বলিবে, কল্য আল্লাহ তায়ালা চাহেনতো তোমরা উহা ভাঙ্গিয়া ফেলিবে। আর তাহারা (পর দিবস) প্রত্যাবর্তন করিয়া উক্ত প্রাচীরকে যে অবস্থায় ত্যাগ করিয়াছিল, ঠিক সেই অবস্থায় পাইবে এবং উহা ভাঙ্গিয়া ফেলিয়া লোকদিগের নিকট বাহির হইয়া পড়িবে। তৎপরে তাহারা পানির সম্মুখীন হইবে। লোক সকল তাহাদের নিকট হইতে পলায়ন করিবে। তখন তাহারা নিজেদের তীরকে আছমানের দিকে নিক্ষেপ করিবে। ইহাতে তীরগুলি রক্তে রঞ্জিত অবস্থায় ফেরত দেওয়া হইবে। সেই সময় তাহারা বলিবে, আমরা জমিনবাসিদিগের উপর পরাক্রান্ত হইয়াছি এবং দৃঢ়তা ও বিক্রমে আছমানবাসিদিগের উপর আধিপত্য স্থাপন করিলাম। তখন আল্লাহ তায়ালা তাহাদের গ্রীবাদেশে (প্লেগের) কীট প্রেরণ করিবেন, ইহাতে তাহারা মৃত্যুপ্রাপ্ত হইবে।”  (অসমাপ্ত)

খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির

খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির

খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির

খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির

খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির