আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

সংখ্যা: ২৪১তম সংখ্যা | বিভাগ:

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ


আল বাইয়্যিনাত শরীফ প্রতিবেদন : যামানার খাছ লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, খ¦লীফাতুল্লাহ, খ¦লীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, আওলাদে রসূল, মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি বলেছেন, পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করা কুল কায়িনাত উনার সবার জন্যই ফরযে আইন।

পবিত্র সূরা মায়িদা শরীফ উনার ১১৪ ও ১১৫ নম্বর পবিত্র আয়াত শরীফ উনার উদ্বৃতি দিয়ে তিনি বলেন, হযরত ঈসা রূহুল্লাহ আলাইহিস সালাম তিনি মহান আল্লাহ পাক উনার নিকট দুয়া করেছিলেন, “আয় আমাদের রব মহান আল্লাহ পাক! আপনি আমাদের জন্য আসমান হতে (বেহেশতী খাদ্যের) একটি খাঞ্চা নাযিল করুন। খাঞ্চা নাযিলের উপলক্ষটি আমাদের জন্য, আমাদের পূর্ববর্তী ও পরবর্তী সকলের জন্য ঈদ (খুশি) স্বরূপ হবে এবং আপনার পক্ষ হতে একটি নিদর্শন হবে। আমাদেরকে রিযিক দান করুন। নিশ্চয়ই আপনিই উত্তম রিযিকদাতা। মহান আল্লাহ পাক তিনি বললেন, নিশ্চয়ই আমি তোমাদের প্রতি খাঞ্চা নাযিল করবো। অতঃপর যে ব্যক্তি সে খাঞ্চা নাযিলের দিনকে ঈদ বা খুশির দিন হিসেবে পালন করবে না বরং অস্বীকার করবে আমি তাকে এমন শাস্তি দিবো, যে শাস্তি জগতের অপর কাউকে দিবো না।”

মুজাদ্দিদে আ’যম, ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি আরো বলেন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, পবিত্র জুমুয়ার দিন সকল দিনের সাইয়্যিদ এবং সকল দিন অপেক্ষা মহান আল্লাহ পাক উনার নিকট অধিক শ্রেষ্ঠ ও সম্মানিত। এটি পবিত্র ঈদুল আযহা উনার দিন ও পবিত্র ঈদুল ফিতর উনার দিন অপেক্ষাও মহান আল্লাহ পাক উনার নিকট অধিক শ্রেষ্ঠ ও সম্মানিত। এ দিনটিতে পাঁচটি (গুরুত্বপূর্ণ) বিষয় রয়েছে- (১) এ দিনে মহান আল্লাহ পাক তিনি হযরত আবুল বাশার আদম ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম উনাকে সৃষ্টি করেছেন, (২) এ দিনে উনাকে যমীনে প্রেরণ করেছেন, (৩) এ দিনে তিনি পবিত্র বিছালী শান মুবারক প্রকাশ করেছেন, (৪) এ দিন কিয়ামত সংঘটিত হবে। (৫) এ দিন এমন একটি সময় রয়েছে যে সময় দোয়া কবুল হয়।

মুজাদ্দিদে আ’যম, ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, এখন ফিকিরের বিষয় হচ্ছে, হযরত আবুল বাশার আদম ছফিউল্লাহ আলাইহিস সালাম উনার আগমন ও বিছাল শরীফ উনার শান মুবারক প্রকাশের দিন হওয়ার কারণে পবিত্র জুময়ার দিন যদি পবিত্র ঈদ উনার দিন হয় এবং তা পবিত্র ঈদুল ফিতর ও পবিত্র ঈদুল আযহা উনাদের দিন থেকেও সম্মানিত ও শ্রেষ্ঠ হয় পাশাপাশি খাঞ্চা নাযিলের কারণে খাঞ্চা নাযিলের দিনটি যদি হযরত রহুল্লাহ আলাইহিস সালাম এবং উনার উম্মতের জন্য ঈদ বা খুশির দিন হয় এবং সে দিনকে খুশির দিন হিসেবে পালন না করলে কঠিন শাস্তির যোগ্য হতে হয়; তাহলে যিনি সৃষ্টি না হলে স্বয়ং মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার রুবূবিয়াত মুবারকও প্রকাশ করতেন না, সেই নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি যেই দিন যে তারিখে এই দুনিয়ার যমীনে তাশরীফ মুবারক আনলেন, সেই পবিত্র ১২ই রবীউল আউওয়াল শরীফ উনার দিন অন্যান্য ঈদের চেয়ে কত শ্রেষ্ঠ, মর্যাদাবান ও ফযীলতপূর্ণ হবে এবং তা সমস্ত মাখলুকাতের জন্য পালন করা যে ফরয তা বলার অপেক্ষাই রাখে না। বরং তা পালন না করলে কঠিন শাস্তিতে গ্রেফতার হতে হবে।

সুতরাং আনজুমান আমীলগণের দায়িত্ব-কর্তব্য হলো, এই বিশেষ মর্যাদাপূর্ণ অনন্তকালব্যাপী জারীকৃত পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার যথাযথ খিদমত মুবারক উনার আনজাম দেয়া এবং পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার ব্যাপক প্রচার প্রসারের উদ্যোগ নেয়া।

মাহফিল সংবাদ

আহলান-সাহলান আযীমুশ শান পবিত্র ঈদে বিলাদতে হযরত নিবরাসাতুল উমাম আলাইহাস সালাম

১৯শে রবীউছ ছানী শরীফ ছিলো লখতে জিগারে মুজাদ্দিদে আ’যম, ক্বায়িম-মক্বামে হযরত উম্মে কুলছুম আলাইহাস সালাম, সাইয়্যিদাতুন নিসা, নিবরাসাতুল উমাম, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদাতুনা হযরত শাহযাদী ছানী ক্বিবলা আলাইহাস সালাম উনার বেমেছাল মহিমান্বিত, রহমত-বরকত ও ফযীলতপূর্ণ, সাকীনাযুক্ত মুবারক বিলাদত শরীফ দিবস। সুবহানাল্লাহ!

পাশাপাশি পবিত্র ১১ই রবীউছ ছানী শরীফ ছিলো গউছুল আ’যম, সাইয়্যিদুল আউলিয়া, আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত বড় পীর ছাহিব রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার পবিত্রতম বিছাল শরীফ দিবস তথা পবিত্র ফাতেহায়ে ইয়াযদহম শরীফ।

সুমহান এসব দিবস মুবারক উপলক্ষে আয়োজিত মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে তাশরীফ আনেন, যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি।

আযীমুশ শান পবিত্র ১৯শে রবীউছ ছানী শরীফ এবং পবিত্র ফাতিহায়ে ইয়াযদহম শরীফ উপলক্ষে রাজারবাগ শরীফ পবিত্র সুন্নতি জামে মসজিদে বিশেষ অনুষ্ঠান মুবারকের আয়োজন করা হয়। এর মধ্যে ছিল উনাদের বরকতময় পবিত্রতম জীবনী মুবারক থেকে আলোচনা, ওয়াজ শরীফ ও সামা শরীফ এবং কবিতা শরীফ প্রতিযোগিতা, দৈনিক আল ইহসান শরীফ বিশেষ সংখ্যা প্রকাশ, বিশেষ মক্ববুল দোয়া-মুনাজাত শরীফসহ ও বিশেষ তাবারুকের আয়োজন।

তাছাড়া দেশে-বিদেশের বিভিন্ন আনজুমান মজলিস উনাদের উদ্যোগেও বিশেষ মাহফিল মুবারক অনুষ্টিত হয়।

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

পৃথিবীর ইতিহাসে নজীরবিহীন অনন্তকালব্যাপী জারীকৃত পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ উনার বিশেষ শান মুবারক ৬৩ দিনব্যাপী বিশেষ মাহফিল

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ