আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

সংখ্যা: ২৭৩তম সংখ্যা | বিভাগ:

আল বাইয়্যিনাত শরীফ প্রতিবেদন : যামানার লক্ষ্যস্থল ওলীআল্লাহ, যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, ক্বইয়ূমুয যামান, জাব্বারিউল আউওয়াল, ক্বউইয়্যূল আউওয়াল, সুলত্বানুন নাছীর, হাবীবুল্লাহ, জামিউল আলক্বাব, আওলাদে রসূল, মাওলানা সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, পবিত্র যাকাত দেয়ার সর্বোত্তম ও সঠিক স্থান হচ্ছে রাজারবাগ দরবার শরীফস্থ মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ মাদরাসা ও ইয়াতীমখানা। কারণ ‘মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ’ উনার অনন্য বৈশিষ্ট্যসমূহ হচ্ছে এই যে, একমাত্র অত্র প্রতিষ্ঠানেই ইলমে ফিক্বাহ উনার পাশাপাশি ইলমে তাছাউফ শিক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে যা শিক্ষা করা প্রত্যেক মুসলমান পুরুষ-মহিলা উনাদের জন্য ফরয। এই শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে সম্পূর্ণ শরয়ী পর্দার সাথে বালক ও বালিকাদের পৃথকভাবে শিক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বালক শাখার শিক্ষক, কর্মকর্তা ও আমীলগণ প্রত্যেকেই পুরুষ এবং বালিকা শাখার শিক্ষিকা, কর্মকর্তা ও আমীলগণ প্রত্যেকেই মহিলা।

মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা- মহাসম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার নামে অনৈসলামিক কর্মকা- যেমন, মহাসম্মানিত দ্বীন ইসলাম উনার নামে দলাদলি, ভোট-নির্বাচন, মৌলবাদ-সন্ত্রাসবাদ, বোমাবাজি, হরতাল-লংমার্চ, কুশপুত্তলিকা দাহ, ছবি তোলা, ভিডিও করা, টিভিতে অনুষ্ঠান করা, খেলাধুলা ইত্যাদি হারাম ও কুফরীমূলক কাজের সাথে এবং এ ধরনের কোনো প্রকার অবাঞ্ছিত সংগঠন বা দলের সাথে সম্পৃক্ত নয়। বরং এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের দৈনন্দিন আমল এবং মাথার তালু থেকে পায়ের তলা পর্যন্ত সব কিছুই পবিত্র সুন্নত মুবারক উনার অলঙ্কারে অলঙ্কৃত হওয়া শর্ত। সর্বোপরি এই শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে মহাসম্মানিত আহলে সুন্নত ওয়াল জামায়াত উনার আক্বীদাভিত্তিক মহাপবিত্র কুরআন শরীফ, মহাপবিত্র হাদীছ শরীফ, পবিত্র ইজমা শরীফ এবং পবিত্র ক্বিয়াস শরীফ উনাদের আলোকে ইলম শিক্ষা দেয়া হয়। যার উদ্দেশ্য হচ্ছে- বাস্তব জীবনে সুন্নতে নববী শরীফ উনার আদর্শ মুবারক প্রতিষ্ঠা তথা সঠিক ইসলাম কায়িমের মাধ্যমে মহান আল্লাহ পাক উনার এবং উনার রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাদের সন্তুষ্টি বা রেযামন্দি মুবারক হাছিল করা। সুবহানাল্লাহ!

মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি বলেন, লক্ষ্যণীয় যে, যাকাত আদায় করা যেরূপ ফরয; তদ্রƒপ সঠিক স্থানে পবিত্র যাকাত পৌঁছানোও ফরয এবং পবিত্র যাকাত কবুল হওয়ার কারণ। জামাতী, খারিজী, হেফাজতী, ওহাবী, ক্বওমী ও সন্ত্রাসবাদী-মৌলবাদী তথা ধর্মব্যবসায়ীদের এবং তাদের কথিত মাদরাসাতে, আনজুমানে মুফীদুল ইসলামে, কোয়ান্টামে, জাকির নায়েক ওরফে কাফির নালায়েকের পিস টিভি তথা পিস ফাউন্ডেশনকে পবিত্র যাকাত দিলে পবিত্র যাকাত আদায় হবে না। তাদেরকে পবিত্র যাকাত দিলে তাতে বদ আক্বীদা ও বদ আমলের প্রচারে সহায়তা করা হবে। সন্ত্রাসী, জামাতী, হেফাজতী কওমী ও ধর্মব্যবসায়ী তৈরিতে ও কুফরী মতবাদ প্রচারে সাহায্য করা হবে। তাতে লক্ষ-কোটি কবীরা গুনাহে গুনাহগার হতে হবে। নাউযুবিল্লাহ!

তাই আনজুমান আমীলসহ সকল মুসলমানের উচিত প্রত্যেকের নিজের এবং অন্যান্যদের থেকে যাকাত, উশর, ফিৎরা, দান, ছদক্বা ইত্যাদি সংগ্রহ করে মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ মাদরাসা ও ইয়াতিমখানায় পৌঁছানো।

মাহফিল সংবাদ

পৃথিবীর ইতিহাসে নজীরবিহীন অনন্তকালব্যাপী জারীকৃত পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ মাহফিল চলমান

খ¦লীফাতুল্লাহ, খ¦লীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম উনার কর্তৃক জারীকৃত পৃথিবীর ইতিহাসে নজীরবিহীন অনন্তকালব্যাপী পবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ মাহফিল প্রতিদিন বাদ মাগরিব হতে রাজারবাগ শরীফ পবিত্র সুন্নতী জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এছাড়া পবিত্র আইয়্যামুল্লাহ শরীফ সমূহ উপলক্ষ্যে সকল বিশেষ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

এসব সুমহান মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে তাশরীফ নেন, খ¦লীফাতুল্লাহ, খ¦লীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি। সুবহানাল্লাহ!

একইভাবে সাইয়্যিদাতুন নিসা, আফযালুন নিসা, ইমামাতুছ ছিদ্দীক্বা, উম্মুল উম্মাহাত, আফদ্বালুন নিসা বা’দাল আম্বিয়ায়ি ওয়া উম্মাহাতিল মু’মিনীন আলাইহিন্নাস সালাম, কায়িম মাক্বামে উম্মুল মু’মিনীন, নুরে জাহান, আল মাবরুরা, আল মাহযুবা, আল ক্বারীবা ওয়াল মুক্বাররিবা, হাবীবাতুল্লাহ, আওলাদে রসূল, উম্মুল উমাম সাইয়্যিদাতুনা হযরত আম্মা হূযুর ক্বিবলা আলাইহাস সালাম উনার মুবারক পৃষ্ঠপোষকতায় মুহম্মদিয়া জামিয়া শরীফ বালিকা মাদরাসায় বাদ যুহর থেকে প্রতিদিন ও আইয়্যামুল্লাহ শরীফসমূহে ‘ফাল ইয়াফরাহু’ মাহফিলসহ অন্যান্য সমস্ত মাহফিলই অনুষ্ঠিত হয়। সুবহানাল্লাহ!

এসব সুমহান দিবস মুবারক উপলক্ষে আজীমুশ্বান ওয়াজ শরীফ, সামা শরীফ, প্রতিযোগীতা, মীলাদ শরীফ, ক্বিয়াম শরীফ, বিশেষ মক্ববুল দোয়া-মুনাজাত শরীফ করা হয় এবং দৈনিক আল ইহসান শরীফ উনার বিশেষ সংখ্যা, বিশেষ রেসালা শরীফ প্রকাশ করা হয়। পাশাপাশি ব্যাপক আয়োজনে তবারুক মুবারকও বিতরণ করা হয়।

মহাসম্মানিত সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আ’দাদ শরীফ তথা মহাপবিত্র ১২ই শরীফ অনুষ্ঠিত

১২ই রমাদ্বান শরীফে রাজারবাগ শরীফ সুন্নতি মসজিদে মহাসম্মানিত মহাপবিত্র সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আ’দাদ শরীফ তথা ১২ই শরীফ উপলক্ষে বিশেষ মাহফিল এবং কোটি কোটি কণ্ঠে পবিত্র মীলাদ শরীফ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত আজিমুশ্বান মাহফিলে কুতুবুল আলম, আওলাদে রসূল সাইয়্যিদুনা হযরত শাফিউল উমাম আলাইহিস সালাম এবং সাইয়্যিদুনা হযরত হাদিউল উমাম আলাইহিস সালাম উনারা মুবারক নছীহত পেশ করেন।

প্রধান অতিথি হিসেবে মুবারক নছীহত এবং বিশেষ মুনাজাত মুবারক করেন, ছহিবু সাইয়্যিদিল আ’ইয়াদ শরীফ, খ¦লীফাতুল্লাহ, খ¦লীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইউস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামুল উমাম আলাইহিস সালাম তিনি।

আজিমুশ্বান মাহফিলের অংশ হিসেবে বাদ যোহর পবিত্র কোটি কোটি কণ্ঠে মীলাদ শরীফ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে অনলাইনে আশিকীন, মুহিব্বীন, মুরিদীন ও ভক্তবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন। কোটি কোটি কণ্ঠে মীলাদ শরীফ শেষে ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন এলাকায় পবিত্র মীলাদ শরীফ পাঠ এবং তবারুক হিসেবে বিশেষ ইফতার বিতরণ করা হয়।

মুহম্মদীয়া জামিয়া শরীফ মাদরাসা ও ইয়াতীমখানার উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবে পবিত্র যাকাত এবং আত তাক্বউয়ীমুশ শামসী’ উনার উপর সেমিনার অনুষ্ঠিত

সঠিক স্থানে পবিত্র যাকাত পৌঁছানো এবং নাহক্ব স্থানে পবিত্র যাকাত না দেয়ার আহবান জানিয়ে গত ৫ই রমাদ্বান শরীফ/১৪৪০ হিজরী, ১১ই ছানী ‘আশার/১৩৮৬ শামসী, মোতাবিক ১১ মে/২০১৯ ঈসায়ী তারিখে জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এক বিশেষ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সেমিনারে বলা হয়, আক্বীদা আমল যাচাই বাছাই ছাড়া সম্মানিত শরীয়ত বিরোধী কাজে লিপ্ত অথবা সম্মানিত শরীয়ত বিরোধী কাজে ব্যবহার করে এমন কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে যাকাত প্রদান করা জায়িয নয়। এতে যাকাত আদায় হবেনা। সম্মানিত শরীয়ত অনুযায়ী যিনি সবচেয়ে বেশী তাক্বওয়া পরহিযগার এবং সুন্নতের পাবন্দ উনার কাছে তথা যিনি খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার কাছে পবিত্র যাকাত-উশর সহ সর্বপ্রকার আর্থিক সাহায্য-সহযোগিতা পৌঁছাতে হবে। তবেই যাকাতের পরিপূর্ণ ফযীলত পাওয়া যাবে।

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ