পঞ্চদশ হিজরী শতকের মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদুর রসূল, ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার সাইয়্যিদুনা মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মহা সম্মানিতা আম্মা, আওলাদুর রসূল, সাইয়্যিদাতুনা আমাদের-হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা কা’বা আলাইহাস সালাম উনার সীমাহীন ফাদ্বায়িল-ফদ্বীলত, বুযূর্গী-সম্মান, মান-শান, বৈশিষ্ট্য এবং উনার অনুপম মাক্বাম সম্পর্কে কিঞ্চিৎ আলোকপাত-৬৫ -মুহম্মদ সা’দী

সংখ্যা: ২৭৫তম সংখ্যা | বিভাগ:

 

পূর্ব প্রকাশিতের পর

মুবারক শৈশব ও কৈশোর থেকেই সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা কা’বা আলাইহাস সালাম উনার সুন্নত মুবারক এবং শরয়ী পর্দা পালনের

একনিষ্ঠ অভ্যস্ততা:

সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, গাউছুল আ’যম, ইমামুল আইম্মাহ, ইমামুল উমাম, আন নি’মাতুল উজমা আলাল আলাম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদুর রসূল, সাইয়্যিদুনা মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা কা’বা আলাইহিস সালাম উনাকে মূল নিয়ামত হিসেবে পবিত্রতম রেহেম শরীফে ধারণকালে সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা কা’বা আলাইহাস সালাম তিনি কোনোই কষ্টভোগ করেননি। অত্যন্ত হালকাবোধ করেছেন। সুবহানাল্লাহ!

অনেক গউছ, কুতুব, আবদাল, নজীব-নুজাবা, নক্বীব-নুক্বাবা, ইমাম, মুজতাহিদ, মুজাদ্দিদ, ওলীআল্লাহ উনারা প্রতিনিয়ত সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা কা’বা আলাইহিস সালাম উনার খিদমত মুবারক রূহানীভাবে তাশরীফ মুবারক এনে উনাকে সশ্রদ্ধ সালাম মুবারক পেশ করেছেন। উনাকে সুসংবাদ মুবারক দিয়েছেন যে, তিনি (সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা কা’বা আলাইহাস সালাম) কায়িনাতবাসির সার্বিক কল্যাণের জন্য যাঁকে হাদিয়া করতে যাচ্ছেন, তিনি হলেন কুল কায়িনাতের শ্রেষ্ঠতম নি’মাতে উজমা, কুল কায়িনাতের রাহবারে আ’যম, গোটা বিশ্বের সকল জিন-ইনসানের মুক্তির একমাত্র দিশারী, সকল বিধর্মীদের নিপাতকারী, সর্বনিকৃষ্ট ধর্ম ব্যবসায়ী উলামায়ে সূদের বিনাশসাধনকারী, সম্মানিত সুন্নত যিন্দাকারী এবং নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার রেখে যাওয়া সম্মানিত দ্বীন-ইসলাম উনাকে হাক্বীক্বীভাবে যিন্দাকারী এবং যমীনে বাস্তবায়নকারী। সুবহানাল্লাহ!

স্বয়ং সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিয়্যীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, মাশুকে মাওলা হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি উনার খাছ আওলাদ, উনার খাছ আহলু বাইত শরীফ, ওলীয়ে মাদারযাদ, আওলাদে রসূল, ক্বায়িম মাক্বামে সাইয়্যিদাতুনা হযরত উম্মু রসূলিনা ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদীজান ক্বিবলা কা’বা আলাইহাস সালাম উনাকে অনেকবার, বহুবার, শতবার, হাজারবার মুবারক সুংবাদ জানিয়েছেন যে, তিনি উনার পবিত্রতম রেহেম শরীফে ধারণ করেছেন, বেমেছাল মর্যাদা ও মাক্বামসম্পন্ন এমন এক মহাসম্মানিত আওলাদ, যিনি সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, যিনি ইমামুল উমাম, যিনি আন নি’মাতুল উজমা আলাল আলাম, যিনি হাক্বীক্বী ক্বায়িম-মাক্বামে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। আরো জানিয়েছেন যে, ক্বিয়ামতব্যাপী পরিব্যাপ্ত ও কার্যকর উনার অপ্রতিরোধ্য তাজদীদ মুবারক উনার প্রভাব ও বিস্তার ঘটবে কুল কায়িনাতব্যাপী। তিনি বাতিল বিনাশকারী, তিনি হক্ব প্রতিষ্ঠাকারী। সুবহানাল্লাহ!

প্রাণের আক্বা, ক্বিবলা কা’বা সাইয়্যিদে মুজাদ্দিদে আ’যম, ইমামুল উমাম, আন নি’মাতুল উজমা আলাল আলাম, সাইয়্যিদুনা মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম তিনি পবিত্র রেহেম শলীফে মুবারক তাশরীফ গ্রহণের পর উনার মহাসম্মানিত আম্মাজান আলাইহাস সালাম উনাকে স্বপ্নে ও জাগরণে প্রতিদিন, প্রতি মুহূর্ত জানানো হয়েছে: “আপনি মহা-সম্মানিতা। আপনি পরম ভাগ্যবতী। পবিত্র রেহেম শরীফে আপনি যে মহাসম্মানিত এবং মহা মর্যাদা ও মাক্বামসম্পন্ন বুযুর্গ আওলাদ ধারণ করেছেন, তিনি কায়িনাবাসীর সর্বক্ষণের ধ্যান, জ্ঞান, মনোযোগ, আনুগত্য ও মুরকাবার ক্বিবলা কা’বা। উনার দূর্বার তাজদীদে সম্মানিত দ্বীন-ইসলাম নবায়ন হবে। সুবহানাল্লাহ!

মহান আল্লাহ পাক সুবহানাহু ওয়া তায়ালা তিনি পবিত্র কালামুল্লাহ শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন:

إِنَّ اللهَ وَمَلَائِكَتَه يُصَلُّوْنَ عَلَى النَّبِيِّ

অর্থ: “নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার সমস্ত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনারা নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ, মাশুকে মাওলা হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার পবিত্র শান মুবারকে সৃষ্টির আদিকাল থেকে পবিত্রতম সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনে মশগুল রয়েছেন। সুবহানাল্লাহ! (পবিত্র সূরা আহযাব শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ- ৫৬)

ওলীয়ে মাদারযাদ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদাতুনা হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা কা’বা আলাইহাস সালাম তিনি এমন এক বুযুর্গ আওলাদ কায়িনাতবাসীকে হাদিয়া করেছেন, যিনি মহান আল্লাহ পাক উনার আখাছছুল খাছ আমল মুবারক, অর্থাৎ মহাপবিত্রতম সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ অনন্তকালের জন্য জারী করেছেন এবং সর্বক্ষণ পালন করে যাচ্ছেন। সুবহানাল্লাহ!  (চলবে)

সুলত্বানুল হিন্দ, কুতুবুল মাশায়িখ, মুজাদ্দিদ যামান, গরীবে নেওয়াজ, আওলাদে রসূল, হাবীবুল্লাহ সাইয়্যিদুনা হযরত খাজা মুঈনুদ্দীন হাসান চিশতী আজমিরী সাঞ্জারী রহমতুল্লাহি আলাইহি-৩৭ (বিলাদত শরীফ ৫৩৬ হিজরী, বিছাল শরীফ ৬৩৩ হিজরী)

ইমামুল মুসলিমীন, মুজাদ্দিদে মিল্লাত ওয়াদ দ্বীন, হাকিমুল হাদীছ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ ইমামে আ’যম সাইয়্যিদুনা হযরত ইমাম আবূ হানীফা রহমতুল্লাহি আলাইহি-৫৩ (বিলাদাত শরীফ- ৮০ হিজরী, বিছাল শরীফ- ১৫০ হিজরী)

পঞ্চদশ হিজরী শতকের মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদুর রসূল, ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার সাইয়্যিদুনা মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মহা সম্মানিতা আম্মা, আওলাদুর রসূল, সাইয়্যিদাতুনা আমাদের- হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা কা’বা আলাইহাস সালাম উনার সীমাহীন ফাদ্বায়িল-ফদ্বীলত, বুযূর্গী-সম্মান, মান-শান, বৈশিষ্ট্য এবং উনার অনুপম মাক্বাম সম্পর্কে কিঞ্চিৎ আলোকপাত-৫৭-মুহম্মদ সা’দী

ওলীয়ে মাদারজাদ, মুসতাজাবুদ্ দা’ওয়াত, আফযালুল ইবাদ, ছাহিবে কাশফ্ ওয়া কারামত, ফখরুল আউলিয়া, ছূফীয়ে বাত্বিন, ছাহিবে ইস্মে আ’যম, লিসানুল হক্ব, গরীবে নেওয়াজ, আওলাদে রসূল, আমাদের সম্মানিত দাদা হুযূর ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার স্মরণে- একজন কুতুবুয্ যামান উনার দীদারে মাওলা উনার দিকে প্রস্থান-২০৭ -মুহম্মদ সা’দী

সুলত্বানুল হিন্দ, কুতুবুল মাশায়িখ, মুজাদ্দিদুয যামান, গরীবে নেওয়াজ, আওলাদে রসূল, হাবীবুল্লাহ সাইয়্যিদুনা হযরত খাজা মুঈনুদ্দীন হাসান চিশতী আজমিরী সাঞ্জারী রহমতুল্লাহি আলাইহি-৪৮ (বিলাদত শরীফ ৫৩৬ হিজরী, বিছাল শরীফ ৬৩৩ হিজরী) ভারতে মুসলিম সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠা (১)