আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

সংখ্যা: ১৯৭তম সংখ্যা | বিভাগ:

আল বাইয়্যিনাত প্রতিবেদন: নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি চরম-পরম আনুগত্য, মুহব্বত এবং প্রতিক্ষেত্রে, প্রতি মুহূর্তে উনাকে স্মরণ, উনার পবিত্র উপলব্ধি ও অনুভব শক্তি অর্জন করতে পারলেই মুসলমানগণ চূড়ান্ত কামিয়াবী লাভ করতে পারবে। পূর্ব যুগের মুসলমানগণ যেভাবে সারাবিশ্বে গৌরব ও মর্যাদার পতাকা উড্ডীন করেছিলেন এ যুগের মুসলমানগণও তা পারবে।

ইমামে আ’যম, মুজাদ্দিদে আ’যম, খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, কুতুবুল আলম, সুলত্বানুন নাছীর, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী তিনি আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত-এর বিশেষ মজলিসে এসব কথা বলেন।

মুজাদ্দিদে আ’যম মুদ্দা জিল্লুহুল আলী তিনি বলেন, খ্রিস্টানরা বাতিল হওয়ার পরেও, এদের দাবি অসত্য হওয়ার পরেও এরা এদের নবীকে স্মরণে রাখতে, সার্বক্ষণিক অনুভবে রাখতে, অনুক্ষণ ক্রুসের চেতনায় উদ্বুদ্ধ থাকতে তারা গলায় টাই ধারণসহ, গলায় ক্রুশের লকেট, ঘরবাড়ির দরজা-জানালা, ভেন্টিলেটর, বাড়ি-ঘরের আসবাব পত্র, ব্যবহার্য সামগ্রী, বিছানার চাদর বালিশসহ সর্বত্র ক্রুসের চিহ্ন লালন করে থাকে তাদের নবীর স্মরণে চেতনাম-িত হওয়ার প্রত্যাশায়। তারা তাদের নবীর কথিত জন্মদিন উপলক্ষে এক দেড়মাস ব্যাপী অফিস-আদালত, স্কুল-কলেজ বন্ধ রাখে ক্রুসীয় চেতনায় উদ্বুদ্ধ করে রাখার জন্য দ্রব্য-মূল্যের দাম অর্ধেক বা তার চেয়েও বেশি কমিয়ে দেয়। যাতায়াত ভাড়া কমানো হয় বা ফ্রী করা হয়। বাসা-বাড়িতে, হোটেল রেস্তোরাঁয়, গির্জায় গির্জায় বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে- পত্র-পত্রিকায় বিস্তর লেখা-লেখি হয়। মিডিয়া বিভিন্ন অনুষ্ঠান প্রচার করে থাকে। এই এক-দেড় মাস তাদের যেন ঈদ লেগে যায়।

কিন্তু অত্যন্ত দুঃখজনক হলেও সত্য যে, যার ওসীলায় আমরা মুসলমান, যার জন্য আমাদের সৃষ্টি, যার প্রতি বিশ্বাস-আনুগত্য ও মুহব্বত ঈমানের মূল উনাকে কী মুসলমানগণ একবারও স্মরণ করে? উনার পবিত্র বিলাদত শরীফ কখন আসে অথবা কখন যায় তার কোন খবর কী মুসলমানরা রাখে? মুসলমানরা কী তাদের রসূল, তাদের নবী; যিনি কুল কায়িনাতের সবার নবী ও রসূল উনাকে স্মরণ করে? উনার আলোচনার আয়োজন করে? উনার বিলাদত শরীফ উপলক্ষে আমাদের সরকার কী অফিস-আদালত, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে? ব্যবসায়ীরা কী দ্রব্যমূল্যে কমায়? সরকার বা বেসরকারি উদ্যোগে যাতায়াত ভাড়া কী কমানো বা ফ্রী করা হয়? মুসলমানগণ কী ঈদ অনুভব করে? মুসলমান প্রতিটি ক্ষেত্রে, প্রতিটি মুহূর্তে উনার পবিত্র স্মরণ, উনার উপলব্ধি, অনুভব-অনুভূতিতে টের পায়? অন্তরে উনার প্রতি মুহব্বত অনুভব করে? যদি করে থাকে তবে অবশ্যই সে খাঁটি মুসলমান। আর যদি না করে থাকে তবে তাকে তা অর্জনের কোশেশ করতে হবে। তাহলেই হাক্বীক্বী সফলতা লাভ করা যাবে। মূলত এসবের জন্যে প্রয়োজন যামানার মুজাদ্দিদে আ’যম উনার ছোহবত, ফায়িজ-তাওয়াজ্জুহ লাভ করা।

উল্লেখ্য, গত ১৫ জুমাদাল উখরা রোজ রবিবার সাইয়্যিদাতু নিসায়িল আলামীন, উম্মু আবীহা হযরত যাহরা আলাইহাস সালাম উনার বিলাদত শরীফ উপলক্ষে, ২২ জুমাদাল উখরা, রোজ রবিবার আফদ্বালুন নাস, বা’দাল আম্বিয়া হযরত ছিদ্দীক্বে আকবার রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার বিছাল শরীফ উপলক্ষে এবং ৭ রজব রোজ রোববার হযরত খাজা ছাহেব রহমতুল্লাহি আলাইহি উনার বিছাল শরীফ উপলক্ষে রাজারবাগ দরবার শরীফ-এ মীলাদ শরীফ, ওয়াজ শরীফ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে প্রতিটি মাহফিলে ইমামুয যামান, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে তাশরীফ আনেন এবং মহামূল্যবান মুবারক নছীহত পেশ ও দোয়া মুনাজাত পরিচালনা করেন।

আনজুমান আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত সংবাদ

আনজুমানে আল বাইয়্যিনাত ও মাহফিল সংবাদ