আ’লামু বিত্ ত্বিব, আ’লামু বিল ফারায়িদ্ব, আ’লামু বিসুনানি রসূলিল্লাহ, হুল্লাতুল ইসলাম, আশাদ্দু হিজাবান, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম- রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার নাম মুবারক উনার পূর্বে ব্যবহৃত “মুহইউস সুন্নাহ” লক্বব মুবারক বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-১৫৩

সংখ্যা: ২৫৯তম সংখ্যা | বিভাগ:

লবণের উপকারিতা-২

নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন-

عن حضرت سمرة بن جندب رضى الله تعالى عنه ان النبى صلي الله عليه وسلم قال من حدث عنى بحديث وهو يرى انه كذب فهو احد الكاذبين

অর্থ: হযরত সামুরা ইবনে জুনদুব রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি বর্ণনা করেন। নিশ্চয়ই নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, “যে ব্যক্তি আমার কোন পবিত্র হাদীছ শরীফ বর্ণনা করতঃ (যাচাই-বাছাই ব্যতীত মনগড়াভাবে) মত পোষন করে যে, উহা মওজু বা মিথ্যা, তবে সে ব্যক্তিই মিথ্যাবাদীদের অন্তর্ভুক্ত।” (মুসলিম শরীফ, বাইহাক্বী শরীফ)

নাছিরুদ্দীন আলবানী এবং তারই তল্পীবাহক আব্দুল্লাহ জাহাঙ্গীর, আব্দুল মালেকসহ কিছু লোকের আবির্ভাব হয়েছে যারা নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার অনেক হাদীছ শরীফকে মনগড়াভাবে মওজু বা মিথ্যা হাদীছ বলে আখ্যায়িত করে মুসলিম উম্মাহকে পবিত্র সুন্নত থেকে বিরত রাখার ব্যর্থ কোশেশ করছে। এরাই মুলত হাদীছ শরীফে বর্ণিত মিথ্যাবাদী ও দাজ্জালে কাযযাবের অন্তর্ভুক্ত।

অবস্থাদৃষ্টে মনে হয়, এরাই সম্মানিত দ্বীন- ইসলামের ধারক-বাহক। কেননা তাদের মতাদর্শের খিলাফ যে সকল পবিত্র হাদীছ শরীফ রয়েছে সেগুলোকে তারা মওজু, মিথ্যা, জাল, জয়ীফ বলে আখ্যায়িত করে থাকে। আর তাদের মতের স্বপক্ষে যে সকল পবিত্র হাদীছ শরীফ রয়েছে সেগুলোই ছহীহ, হাসান, ও মু’তাবার বলে অভিহিত করে।

তাদের পক্ষপাতদুষ্ট একচোখা ও ভ্রান্ত দৃষ্টিভঙ্গি উম্মাহর জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর ও আযাব-গযবের কারণ। নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি এদের ছোহবত বা সংস্পর্শ থেকে দূরে থাকতে বলেছেন। তিনি ইরশাদ মুবারক করেন-

عن حضرت ابى هريرة رضى الله تعالى عنه قال قال رسول الله صلي الله عليه وسم يكون فى اخر الزمان دجالون كذابون يأتونكم من الاحاديث بما لم تسمعوا انتم ولا ابائكم فايكم واياهم لا يضلونكم ولا يفتنونكم

অর্থ: “হযরত আবূ হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, আখিরী যামানায়, অনেক মিথ্যাবাদী দাজ্জাল বের হবে। তারা তোমাদেরকে এমন কথা-বার্তা বলবে যা তোমরা কখনো শুননি, তোমাদের পূর্বপুরুষগণও কখনো শুনেনি। কাজেই তোমরা তাদের সংস্পর্শে যাবে না, তাদেরকে তোমাদের কাছে আসতে দিবেনা। তাহলে তারা তোমাদেরকে গোমরাহ বা পথভ্রষ্ট করতে পারবেনা, ফিতনায়ও ফেলতে পারবে না। (তিরমিযী শরীফ, মিশকাত শরীফ)

ছাহিবুর রিদ্বওয়ান, আয়ায্যু উম্মাতিন নাবিয়্যি, আ’দালু উম্মাতিন নাবিয়্যি, ছাহিবুত্ তাক্বওয়া, মাহবুবুল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা, ইমাম- রাজারবাগ শরীফ-এর হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর নাম মুবারকের পূর্বে ব্যবহৃত লক্বব বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-৭২

রাজারবাগ শরীফ-এর হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর নাম মুবারকের পূর্বে ব্যবহৃত লক্বব বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-৭৩

মুত্বহ্হার, মুত্বহ্হির, আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম, ক্বায়িম মাক্বামে হাবীবুল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মাওলানা রাজারবাগ শরীফ উনার মামদূহ মুর্শিদ ক্বিবলা সাইয়্যিদুনা হযরত সুলত্বানুন নাছীর আলাইহিস সালাম উনার মহাসম্মানিত ও মহাপবিত্র নাম মুবারক উনার পূর্বে ব্যবহৃত “মুহইস সুন্নাহ” লক্বব মুবারক বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-১৮৯

ছাহিবুর রিদ্বওয়ান, আয়ায্যু উম্মাতিন নাবিয়্যি, আ’দালু উম্মাতিন নাবিয়্যি, ছাহিবুত্ তাক্বওয়া, মাহবুবুল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা, ইমাম- রাজারবাগ শরীফ-এর হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর নাম মুবারকের পূর্বে ব্যবহৃত লক্বব বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-৭৪

ছাহিবুর রিদ্বওয়ান, আয়ায্যু উম্মাতিন নাবিয়্যি, আ’দালু উম্মাতিন নাবিয়্যি, ছাহিবুত্ তাক্বওয়া, মাহবুবুল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম- রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর নাম মুবারকের পূর্বে ব্যবহৃত লক্বব বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-৭৫