আ’লামু বিত্ ত্বিব, আ’লামু বিল ফারায়িদ্ব, আ’লামু বিসুনানি রসূলিল্লাহ, হুল্লাতুল ইসলাম, আশাদ্দু হিজাবান, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম- রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী- উনার নাম মুবারকের পূর্বে ব্যবহৃত লক্বব বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-৮৯

সংখ্যা: ১৯৫তম সংখ্যা | বিভাগ:

-হযরত মাওলানা মুফতী সাইয়্যিদ মুহম্মদ আব্দুল হালীম

‘মুহইস সুন্নাহ’ লক্বব মুবারক প্রসঙ্গে:

খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাকিমুল হাদীছ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী হচ্ছেন মুহইস সুন্নাহ তথা সুন্নত জিন্দাকারী বা পুনঃপ্রচলনকারী।

তার জাহিরী (বাহ্যিক) দিক উপলব্ধির জন্য ইতঃপূর্বে উনার জিন্দাকৃত বা পুনঃপ্রচলন করা কতিপয় সুন্নতের বর্ণনা দেয়া হয়েছে। সামনে আরো কিছুর বর্ণনা দেয়া হবে ইনশাআল্লাহ। তবে এ পর্যায়ে তার বাহ্যিক (অভ্যন্তরীণ দিক নিয়ে কিছু আলোচনা করবো। আল্লাহ পাক-উনার হাবীব, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এবং পূর্ববর্তী ইমাম-মুজতাহিদ, আউলিয়ায়ে কিরাম উনারা এ বিষয়ে অনেক সুসংবাদ দিয়েছেন। যা অনেক ছুফীয়ানে কিরাম স্বপ্নে, মুরাকাবায়, কাশফে ইত্যাদি ভাবে দেখেছেন, জেনেছেন, শুনতে পেয়েছেন।

উল্লেখ্য যে, স্বপ্ন, মুরাকাবা, মুশাহাদা, কাশফ কুরআন শরীফ, হাদীছ শরীফ সম্মত হলেই দলীল (প্রমাণ) বলে গণ্য। অন্যথায় তা দলীল হিসেবে গণ্য হবে না। আমাদের এ আলোচ্য বিষয়ে- সেটা কুরআন শরীফ, হাদীছ শরীফ সম্মত।

খোদ যামানার ইমাম ও মুজতাহিদ, খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাকিমুল হাদীছ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী উনাকে বিশেষ এক মজলিসে বলতে শুনেছি। তিনি বলেন, একবার যাত্রাবাড়ী দরবার শরীফ-এ সুন্নতী টুপি সম্পর্কে আলোচনা হচ্ছিল। কোন ধরনের টুপি পরা খাছ সুন্নত। আল্লাহ পাক-উনার হাবীব, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কেমন টুপি মুবারক পরিধান করেছেন? সে সম্পর্কে অনেকে অনেক কথা-বার্তা বললেন। তাদের কথা-বার্তা শুনে আমি বললাম, চার টুকরা বিশিষ্ট, গোল, সাদা, সুতি কাপড়ের তৈরি টুপিই হচ্ছে খাছ সুন্নতী টুপি। আল্লাহ পাক-উনার হাবীব, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে আল্লাহ পাক হযরত জিবরীল আলাইহিস সালাম-উনার মাধ্যমে এ টুপি মুবারকই হাদিয়া দিয়েছিলেন।

আমার একথা শুনে কেউ কেউ বিরোধিতা করলো। আমি তাদের কাউকেই আর কোন কিছু বললাম না। কারণ শায়খ বা মুর্শিদ ক্বিবলা-উনার দরবার শরীফ-এ উঁচু স্বরে কথা-বার্তা বলা, ঝগড়াÑঝাটি, তর্ক-বিতর্ক করা নিষেধ। আদবের খিলাফতো বটেই। ছোহবত শেষে আমি স্বীয় গন্তব্য স্থলে ফিরে আসলাম।

পরের দিন ছিল জুমুয়ার দিন। আমি ইশরাকের নামায পড়ে শুয়ে আছি। হঠাৎ অনুভব করলাম কে যেন আমার পা টিপতেছে। চোখ খুলে দেখলাম আমার একজন পীর ভাই, যে সুন্নত সম্পর্কীয় আমার আলোচনা শুনে বিরোধিতা করেছিল। আমি তাকে জিজ্ঞাসা করলাম, কি ব্যাপার! তুমি এতো সকালে এখানে এসেছো, কি কারণ? সে বললো, জুমুয়ার নামায আদায়ের জন্য যাত্রাবাড়ী দরবার শরীফ-এ যাবেন না? আমি বললাম, হ্যাঁ যাবো। কিন্তু এখনো তো সময় হয়নি। তুমি এতো সকালে এসেছো কেন? তখন সে বললো, গত রাতে স্বপ্নে আল্লাহ পাক-উনার হাবীব, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-উনার সাথে আমার যিয়ারত হয়েছে। দেখলাম, উনার মাথা মুবারকে সাদা, গোল, সুতি কাপড়ের তৈরি টুপি মুবারক। মনে হলো সেটা চার টুকরা বিশিষ্ট। কারণ, সামনের দিক থেকে দুটি সেলাই করার চিহ্ন দেখলাম। কিন্তু পিছনের দিকটি দেখতে পেলাম না। কারণ উনার সেই টুপি মুবারকের উপরে সাদা রুমাল ছিল। সেই রুমাল থাকার কারণে পিছনের অংশটি দেখতে পাইনি। তবে মনে হচ্ছে পিছনে আর একটি সেলাইয়ের চিহ্ন আছে। আমি বললাম, ইয়া রসূলাল্লাহ, ইয়া হাবীবাল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! কোন ধরনের টুপি পরা খাছ সুন্নত?

প্রতি উত্তরে তিনি বললেন, টুপির সুন্নতসহ যত সুন্নত ও মাসয়ালা-মাসায়িল সম্পর্কে জানতে চাও রাজারবাগ শরীফ-এর হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা- উনার ছোহবতে যাও, উনার কাছে জিজ্ঞাসা করে জেনে নিও। সঠিক জাওয়াব পাবে। সুবহানাল্লাহ!

একথা শুনার সাথে সাথেই ঘুম ভেঙে গেল। আর এ সুসংবাদটি আপনাকে জানানোর জন্যই সকাল সকাল আসলাম। মূলত এটা উনার মুহইস সুন্নাহ হওয়ারই সত্যায়ন। সীমাহীন মর্যাদা-মর্তবারই প্রমাণ। এরকম একটি দুটি নয় বরং অসংখ্য অগণিত ঘটনা রয়েছে অনেকের জীবনে। যাদের সবাইকে তিনি খলীফাতুল্লাহ, খলীফাতু রসূলিল্লাহ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাকিমুল হাদীছ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-উনার ছোহবত ইখতিয়ার করার জন্য আদেশ দিয়েছেন। এমনকি উনার খোদ শায়খ, কুতুবুল আলম, সুলতানুল আরিফীন, রঈসুল মুফাসসিরীন হযরতুল আল্লামা আবুল খায়ের মুহম্মদ ওয়াজিহুল্লাহ রহমতুল্লাহি আলাইহি, উনি উনার অনেক মুরীদকে উনার ছোহবত ইখতিয়ার করতে সরাসরি বলেছেন। তিনি মুরীদগণকে লক্ষ্য করে প্রায়ই বলতেন, তোমরা আমার দশ বছর ছোহবত ইখতিয়ার করে যা হাছিল করবে আমার শাহ ছাহেবের দশ দিনের ছোহবতে তার চেয়ে বেশি হাছিল করতে পারবে। সুবহানাল্লাহ! (চলবে)

আ’লামু বিত্ ত্বিব, আ’লামু বিল ফারায়িদ্ব, আ’লামু বিসুনানি রসূলিল্লাহ, হুল্লাতুল ইসলাম, আশাদ্দু হিজাবান, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম- রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-এর নাম মুবারকের পূর্বে ব্যবহৃত লক্বব বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-৮৮

আ’লামু বিত্ ত্বিব, আ’লামু বিল ফারায়িদ্ব, আ’লামু বিসুনানি রসূলিল্লাহ, হুল্লাতুল ইসলাম, আশাদ্দু হিজাবান, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম- রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী- উনার নাম মুবারকের পূর্বে ব্যবহৃত লক্বব বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-৯০

আ’লামু বিত্ ত্বিব, আ’লামু বিল ফারায়িদ্ব, আ’লামু বিসুনানি রসূলিল্লাহ, হুল্লাতুল ইসলাম, আশাদ্দু হিজাবান, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম- রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-উনার নাম মুবারকের পূর্বে ব্যবহৃত লক্বব বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-৯১

আ’লামু বিত্ ত্বিব, আ’লামু বিল ফারায়িদ্ব, আ’লামু বিসুনানি রসূলিল্লাহ, হুল্লাতুল ইসলাম, আশাদ্দু হিজাবান, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম- রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-উনার নাম মুবারকের পূর্বে ব্যবহৃত লক্বব বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-৯২

আ’লামু বিত্ ত্বিব, আ’লামু বিল ফারায়িদ্ব, আ’লামু বিসুনানি রসূলিল্লাহ, হুল্লাতুল ইসলাম, আশাদ্দু হিজাবান, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইস সুন্নাহ, কুতুবুল আলম, মুজাদ্দিদে আ’যম, হাবীবুল্লাহ, আওলাদে রসূল, সাইয়্যিদুনা ইমাম- রাজারবাগ শরীফ-এর মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী-উনার নাম মুবারকের পূর্বে ব্যবহৃত লক্বব বা উপাধির তাত্ত্বিক ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ-৯৩