ইমামুল মুসলিমীন, মুজাদ্দিদে মিল্লাত ওয়াদ দ্বীন, হাকিমুল হাদীছ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইউস সুন্নাহ ইমামে আ’যম সাইয়্যিদুনা হযরত ইমাম আবূ হানীফা রহমতুল্লাহি আলাইহি-৬৮ (বিলাদাত শরীফ- ৮০ হিজরী, বিছাল শরীফ- ১৫০ হিজরী)

সংখ্যা: ২৮২তম সংখ্যা | বিভাগ:

রিয়াদ্বত মাশাক্কাত এবং সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামে আ’যম রহমতুল্লাহি আলাইহি (৩)

৫৫ বার পবিত্র হজ্জ আদায়

ইমামুল মুসলিমীন, মুজাদ্দিদে মিল্লাত ওয়াদ দ্বীন সাইয়্যিদুনা হযরত ইমামে আ’যম রহমতুল্লাহি আলাইহি তিনি ৫৫ বার পবিত্র হজ্জ আদায় করেন। মুকাল্লাফ বিশ্শরাহ তথা শরীয়তের হুকুমের আওতাধীন (প্রাপ্ত বয়স্ক) হওয়ার পর থেকে প্রতি বছরই তিনি পবিত্র হজ্জ সুসম্পন্ন করেছেন। সুবহানাল্লাহ!

তিনি নিজেই বর্ণনা করেন, ৮০ হিজরীতে আমার বিলাদত বা জন্ম। ৯৬ হিজরীতে, ষোল বছর বয়সে আমার সম্মানিত পিতার সাথে আমি প্রথমবার হজ্জ করতে যাই। মসজিদে হারাম শরীফ পৌঁছে সেখানে একটি বড় তা’লীমি মজলিস দেখতে পেলাম। আমার পিতাকে জিজ্ঞাসা করলাম, ইহা কার মজলিস? তিনি বললেন, ইনি নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার বিশিষ্ট ছাহাবী সাইয়্যিদুনা হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হারিস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু। ইহা উনারই সম্মানিত তা’লীমি মজলিস।

একথা শুনার সাথে সাথে আমি সেই মজলিসে হাজির হলাম। সাইয়্যিদুনা হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে হারিস রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তিনি সেই সময় উপস্থিত ছাত্রগণকে এই পবিত্র হাদীছ শরীফখানা শুনাচ্ছিলেন-

مَنْ تَفَقَّهَ فِـىْ دِيْنِ اللهِ كَفَاهُ اللهُ هَـمَّهٗ وَرَزَقَهٗ مِنْ حَيْثُ لَا يـَحْتَسِبُ

অর্থ: নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, যে ব্যক্তি ইলমে ফিকাহ (দ্বীনি ইলিম) শিক্ষা করবে মহান আল্লাহ পাক তিনিই  তার সকল সমস্যার সমাধান করে দিবেন। আর এমন স্থান থেকে তাকে রিযিক দান করবেন যা সে কল্পনাও করতে পারবে না। সুবহানাল্লাহ! (মুসনাদে আবী হানীফাহ ২৮২, আখবারু আবী হানীফা ওয়া আসহাবিহী ১৭, ইমাম আ’যম আবু হানীফা এর  জীবন ও কর্ম ১০৫)

সুলত্বানুল হিন্দ, কুতুবুল মাশায়িখ, মুজাদ্দিদ যামান, গরীবে নেওয়াজ, আওলাদে রসূল, হাবীবুল্লাহ সাইয়্যিদুনা হযরত খাজা মুঈনুদ্দীন হাসান চিশতী আজমিরী সাঞ্জারী রহমতুল্লাহি আলাইহি-৪৬ (বিলাদত শরীফ ৫৩৬ হিজরী, বিছাল শরীফ ৬৩৩ হিজরী)

ইমামুল মুসলিমীন, মুজাদ্দিদে মিল্লাত ওয়াদ দ্বীন, হাকিমুল হাদীছ, ইমামুল আইম্মাহ, মুহ্ইউস সুন্নাহ ইমামে আ’যম সাইয়্যিদুনা হযরত ইমাম আবূ হানীফা রহমতুল্লাহি আলাইহি-৬২ (বিলাদাত শরীফ- ৮০ হিজরী, বিছাল শরীফ- ১৫০ হিজরী)

পঞ্চদশ হিজরী শতকের মুজাদ্দিদ, মুজাদ্দিদে আ’যম, আওলাদুর রসূল, ইমাম রাজারবাগ শরীফ উনার সাইয়্যিদুনা মামদূহ হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার মহা সম্মানিতা আম্মা, আওলাদুর রসূল, সাইয়্যিদাতুনা আমাদের- হযরত দাদী হুযূর ক্বিবলা কা’বা আলাইহাস সালাম উনার সীমাহীন ফাদ্বায়িল-ফদ্বীলত, বুযূর্গী-সম্মান, মান-শান, বৈশিষ্ট্য এবং উনার অনুপম মাক্বাম সম্পর্কে কিঞ্চিৎ আলোকপাত-৬৬ -মুহম্মদ সা’দী

ওলীয়ে মাদারজাদ, মুসতাজাবুদ্ দা’ওয়াত, আফযালুল ইবাদ, ছাহিবে কাশফ্ ওয়া কারামত, ফখরুল আউলিয়া, ছূফীয়ে বাত্বিন, ছাহিবে ইস্মে আ’যম, লিসানুল হক্ব, গরীবে নেওয়াজ, আওলাদে রসূল, আমাদের সম্মানিত দাদা হুযূর ক্বিবলা আলাইহিস সালাম উনার স্মরণে- একজন কুতুবুয্ যামান উনার দীদারে মাওলা উনার দিকে প্রস্থান-২১৬ -মুহম্মদ সা’দী

সুলত্বানুল হিন্দ, কুতুবুল মাশায়িখ, মুজাদ্দিদ যামান, গরীবে নেওয়াজ, আওলাদে রসূল, হাবীবুল্লাহ সাইয়্যিদুনা হযরত খাজা মুঈনুদ্দীন হাসান চিশতী আজমিরী সাঞ্জারী রহমতুল্লাহি আলাইহি-৪৭ (বিলাদত শরীফ ৫৩৬ হিজরী, বিছাল শরীফ ৬৩৩ হিজরী)