খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র: খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।”

সংখ্যা: ১৯৬তম সংখ্যা | বিভাগ:

 

কাদিয়ানী রদ!

(ষষ্ঠ ভাগ)

(কুতুবুল ইরশাদ, মুবাহিছে আয’ম, বাহরুল উলূম, ফখরুল ফুক্বাহা, রঈসুল মুহাদ্দিছীন, তাজুল মুফাস্সিরীন, হাফিযুল হাদীছ, মুফতিউল আ’যম, পীরে কামিল, মুর্শিদে মুকাম্মিল হযরতুল আল্লামা মাওলানা শাহ্ ছূফী শায়খ মুহম্মদ রুহুল আমীন রহমতুল্লাহি আলাইহি কর্তৃক প্রণীত æকাদিয়ানী রদ” কিতাবখানা (৬ষ্ঠ খ-ে সমাপ্ত) আমরা মাসিক আল বাইয়্যিনাত পত্রিকায় ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করছি। যাতে কাদিয়ানীদের সম্পর্কে সঠিক ধারণাসহ সমস্ত বাতিল ফিরক্বা থেকে আহ্লে সুন্নত ওয়াল জামায়াতের অনুসারীদের ঈমান-আক্বীদার হিফাযত হয়। আল্লাহ্ পাক আমাদের প্রচেষ্টায় কামিয়াবী দান করুন (আমীন)। এক্ষেত্রে তাঁর কিতাব থেকে হুবহু উদ্ধৃত করা হলো, তবে তখনকার ভাষার সাথে বর্তমানে প্রচলিত ভাষার কিছুটা পার্থক্য লক্ষণীয়)।

(ধারাবাহিক)

তৎপরে লিখিয়াছেন

ويؤيد ذلك حديث المهدى من اهل بيتى يملا الارض عدلا وانه يخرج مع عيسى عليه الصلاة والسلام يساعده على قتل الدجال بباب لد من ارض فلسطين وانه يؤم هذه الامة ويصلى خلفه عيسى بن مريم.

উপরোক্ত মতের সমর্থক এই হাদিছ;-

æমাহদী আমার বংশধর, জমিনকে ন্যায় বিচারে পূর্ণ করিবেন এবং তিনি প্যালেস্টাইনের লোদ নামক দরওয়াজাতে দাজ্জালকে হত্যা করিবেন (হজরত ঈছা আলাইহিস্ সালাম-উনার সহযোগিতা করিতে বাহির হইবেন। তিনি এই উম্মতের এমাম হইবেন এবং ঈছা বেনে মরয়েম আলাইহিস সালাম উনার পশ্চাতে নামাজ পড়িবেন।

আল্লামা এবনে-হাজার মক্কি ‘ছাওয়ায়েকে-মেহরাক’র ৯৮ পৃষ্ঠায় লিখিয়াছেন;Ñ

ولا مهدى الا عيسى اى لا مهدى على الحقيقة سواء لوضعه الجزية واهلاكه الملل المخالفة لملتنا كما صحت الا حاديث اولا مهدى معصوما الا هو. ثم تاويل حديث لا مهدى الا عيسى انما هو على تقدير ثبوته والا فقد قال الحاكم اوردته تعجبنا لا محتجابه وقال البيهقى تفود به محمد بن خالد وقد قال الحاكم انه مجهول واختلف عنه فى اسناده وصرح النسائى بانه منكر وجزم غيره من لحفاظ بان الاحاديث التى قبله اى الناصية على ان المهدى من ولد فاطمة اصح اسنادا.

æউক্ত হাদিছের অর্থ প্রকৃত মাহদী তিনি, যেহুতু তিনি জেজইয়া উঠাইয়া দিবেরন এবং আ্মাদের দ্বীনের বিপরীত দ্বীনগুলি ধ্বংস করি”য়া দিবেন। এতৎ- সম্বন্ধে অনেক হাদিছ ছহিহ সপ্রমাণ হইয়াছে। কিম্বা উহার অর্থ এইরূপ হইবে তাঁহা ব্যতীত বেগোনাহ মাহদী কেহ নাই।

যদিএই হাদিছটী ছহিহ  প্রমাণিত হয়া, তবে উহার উপরোক্ত প্রকার মর্ম্ম লেিত হইবে, নচেং এইরূপ তা’বিলের আবশ্যক নাইম, হাকেম বলিয়াছেন, আশ্চর্য প্রকাশ করার জন্য আমি এই হাদিছটী বর্ণনা করিয়াছি, দলীল গ্রহণ করার জন্য উহা বর্ণনা করি নাই। বয়হকি বলিয়াছেন, মোহাম্মদ বেনে খালেদ একা উহা বর্ণনা করিয়াছেন। হাকেম বলিয়াছেন, উক্ত রাবি অপরিচিত। তৎপরে তিনি কাহার নিকট হইতে হাদিছ রেওয়াএত করিয়াছেন, ইহাত মতভেদ হইয়াছ। নাছায়ি বলিয়াছেন, ঔ ব্যক্তি মোনকর (জইফ), তাঁহা ব্যতীত অন্যান্য হাফেজে হাদিছগণ বলিয়াছেন, ইতিপূর্ব্বে যে হাদিছগুলিতে বর্ণিত হইয়াছ যে, মাহদী ফাতেমা আলাইহাস সালাম-উনার বংশধর হইবেন, তৎসমস্তের ছনদ সমধিক ছহিহ।

(অসমাপ্ত)

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির æইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।”

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র:  খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির “ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।”

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির “ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তভুর্ক্ত হয় যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।” কাদিয়ানী রদ!

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয়। যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।”

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র। খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির। ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয়। যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।”