খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয়। যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।”

সংখ্যা: ২০৮তম সংখ্যা | বিভাগ:

কাদিয়ানী রদ!

(ষষ্ঠ ভাগ)

(কুতুবুল ইরশাদ, মুবাহিছে আয’ম, বাহরুল উলূম, ফখরুল ফুক্বাহা, রঈসুল মুহাদ্দিছীন, তাজুল মুফাস্সিরীন, হাফিযুল হাদীছ, মুফতিউল আ’যম, পীরে কামিল, মুর্শিদে মুকাম্মিল হযরতুল আল্লামা মাওলানা শাহ্ ছূফী শায়খ মুহম্মদ রুহুল আমীন রহমতুল্লাহি আলাইহি কর্তৃক প্রণীত “কাদিয়ানী রদ” কিতাবখানা (৬ষ্ঠ খণ্ডে সমাপ্ত) আমরা মাসিক আল বাইয়্যিনাত পত্রিকায় ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করছি। যাতে কাদিয়ানীদের সম্পর্কে সঠিক ধারণাসহ সমস্ত বাতিল ফিরক্বা থেকে আহ্লে সুন্নত ওয়াল জামায়াতের অনুসারীদের ঈমান-আক্বীদার হিফাযত হয়। আল্লাহ্ পাক আমাদের প্রচেষ্টায় কামিয়াবী দান করুন (আমীন)। এক্ষেত্রে তাঁর কিতাব থেকে হুবহু উদ্ধৃত করা হলো, তবে তখনকার ভাষার সাথে বর্তমানে প্রচলিত ভাষার কিছুটা পার্থক্য লক্ষণীয়)।

(ধারাবাহিক)

(২) দাব্বাতোল আরদ, কুরআন শরীফ-এর সূরা নমল-এ আছে ;-

واذا وقع عليهم القول عليهم اخرجنا لهم دابة من الارض تكلمهم ان الناس كانوا بايتنا لا يوقنون.

মাওলানা অলীউল্লাহ ছাহেব ফৎহোর রহমানের ৪৩৯ পৃষ্ঠায় উহার অনুবাদে লিখিয়াছেন ;-

چوں متحقق شود  دعو عذاب بہر ایشاں بیرون أریم برای ایشاں جانوری از زمین کہ سخن گوید بایشاں سبب أنکہ مردمان بأیات ما یقین نمی أور  دند.

“যখন তাহাদের উপর শাস্তির ওয়াদা সপ্রমাণ হইবে, তখন আমি তাহাদের জন্য জমি হইতে একটী জন্তু বাহির করিব, উহা তাহাদের সহিত কথা বলিবে, এই হেতু যে, লোকেরা আমার নিদর্শনাবলীর উপর বিশ্বাস করিতেছে না।”

ছহিহ মোছলেম, ২/৩৯৩ পৃষ্ঠা ;-

হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলিয়াছেন, যতক্ষণ তোমরা দশটী নিদর্শন না দেখ, ততক্ষণ কিয়ামত হইবে না- ধূম, দাজ্জাল, দাব্বাতোল আরদ, পশ্চিম আকাশে সূর্য্য উদয় হওয়া, হযরত ঈসা আলাইহিস সালাম উনার নাজেল হওয়া, ইয়াজুজ ও মাজুজ, তিনবার জমি ধ্বসিয়া যাওয়া একবার পূর্ব দেশে, একবার পশ্চিম দেশে, একবার আরব উপদ্বীপে, একটী অগ্নি ইয়ামন হইতে বহির হইয়া লোকদিগকে তাহাদের হাসরের স্থানে তাড়াইয়া লইয়া যাইবে। কোন হাদীছ শরীফ-এ একটী ঝটিকার কথা আছে যাহা লোকদিগকে সমুদ্রে নিক্ষেপ করিবে।

ইমাম নাবাবী রহমতুল্লাহি আলাইহি ছহিহ মোছলেমের টীকার, ২/৩৯৩ পৃষ্ঠায় লিখিয়াছেন ;-

واما الدابة المذكورة فى هذا الحديث فهى المذكور فى قوله تعالى واذا وقع القول عليهم اخرجنا لهم دابة من الارض تكلمهم قال المفسرون هى دابة عظيمة تخرج من صدع فى الصفا.

“এই হাদীছ শরীফ উল্লিখিত দাব্বাহ্ কুরআন শরীফ-এর সূরা নমলের উল্লিখিত দাব্বাহ একই বিষয়। তফছিরকারকগণ বলিয়াছেন, উহা একটী বড় পশু যাহা ছাফা পর্ব্বত বিদীর্ণ হওয়ায় বাহির হইয়া পড়িবে।”

ছহিহ তিরমিজি শরীফ ২/১৫০ পৃষ্ঠা ;-

عن حضرت ابى هريرة رضى الله تعالى عنه ان رسول الله صلى الله عليه وسلم قال تخرج لدابة معها خاتم سليمان وعصا حضرت موسى عليه السلام فتجلو وجه المؤمنين وتخنم … الكافر بالخاتم حتى ان اهل الخوان ليجتمون فيقول هذا يا مؤمن من يقول هذا يا كافر.

“হযরত আবূ হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে রেওয়ায়েত- নিশ্চয়ই হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বলিয়াছেন, একটী পশু বাহির হইবে, তাহার নিকট হযরত সুলাইমান আলাইহিস সালাম উনার আংটি ও হযরত মূসা আলাইহিস সালাম উনার যষ্ঠি হইবে, ইহা দ্বারা ঈমানদারগণের চেহারা পরিস্কার করিয়া দিবে এবং আংটি দ্বারা কাফিরের নাসিকাতে মোহর করিয়া দিবে, এমনকি এক দস্তরখানের লোকেরা সমবেত হইবে, ইহাতে এই ব্যক্তি বলিবে, হে ঈমানদার ও অন্যে বলিবে, হে কাফির।”

অবিকল এই মর্মের একটি হাদীছ শরীফ এবনো মাজার ৩০৫ পৃষ্ঠায় আছে। (অসমাপ্ত)

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির æইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।”

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র: খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।”

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র:  খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির “ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।”

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির “ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তভুর্ক্ত হয় যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।” কাদিয়ানী রদ!

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র। খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির। ইসলামী শরীয়তের হুকুম মুতাবিক যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয়। যেমন-  কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩ দিন এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড।”