খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র: ইসলামী শরীয়ত উনার হুকুম মোতাবেক খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির। যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় (যেমন- কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি) তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩দিন। এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড

সংখ্যা: ২৮৪তম সংখ্যা | বিভাগ:

(কাদিয়ানী রদ!)

(কুতুবুল ইরশাদ, মুবাহিছে আয’ম, বাহরুল উলূম, ফখরুল ফুক্বাহা, রঈসুল মুহাদ্দিছীন, তাজুল মুফাস্সিরীন, হাফিযুল হাদীছ, মুফতিউল আ’যম, পীরে কামিল, মুর্শিদে মুকাম্মিল হযরতুল আল্লামা মাওলানা শাহ্ ছূফী শায়েখ মুহম্মদ রুহুল আমীন রহমতুল্লাহি আলাইহি কর্তৃক প্রণীত ‘কাদিয়ানী রদ’ কিতাবখানা (৬ষ্ঠ খন্ডে সমাপ্ত)। আমরা মাসিক আল বাইয়্যিনাত শরীফ পত্রিকায় ইতিপূর্বে ধারাবাহিকভাবে প্রকাশ করেছি। পাঠকদের অনুরোধে তা পুনরায় প্রকাশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যাতে কাদিয়ানীসহ সমস্ত বাতিল ফিরক্বা থেকে সম্মানিত আহলে সুন্নত ওয়াল জামায়াত উনাদের অনুসারীদের ঈমান আক্বীদার হিফাযত হয়। মহান আল্লাহ পাক তিনি আমাদের প্রচেষ্টায় কামিয়াবী দান করুন। আমীন!

যদিও তখনকার ভাষার সাথে বর্তমানে ভাষার কিছুটা পার্থক্য লক্ষ্যণীয়।

মির্জার মাহদী দাবি খণ্ডন

(পূর্ব প্রকাশিতের)

(১৮) শেখ আলি মোত্তাকির প্রণীত ‘বোরহান’ কিতাবে আছে,

يجى من الحجاز حتى يستوى  على منبر دمشق

“হযরত ইমাম মাহদী আলাইহিস সালাম তিনি হেজাজ হতে আগমন করে দেমাশকের মিম্বরে (খুৎবা পড়তে) বসবেন।”

(১৯) ‘মিশকাত শরীফ’, ৪৬৭ পৃষ্ঠা-

عَنْ حَضْرَتْ أَبِـيْ هُرَيْـرَةَ رَضِىَ اللهُ تَعَالٰى عَنْهُ أَنَّ النَّبِيَّ صَلَّى اللهُ عليه وَسَلَّمَ قَالَ سَمِعْتُمْ بِـمَدِيْـنَةٍ جَانِبٌ مِنْهَا فِي الْبَرِّ وَجَانِبٌ مِنْهَا فِي الْبَحْرِ‏ ‏.‏ قَالُوْا نَعَمْ يَا رَسُوْلَ اللهِ‏ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ قَالَ لَا تَـقُوْمُ السَّاعَةُ حَتّٰى يَغْزُوَهَا سَبْـعُوْنَ أَلْفًا مِنْ بَنِـيْ إِسْحَاقَ فَإِذَا جَاءُوْهَا نَـزَلُوْا فَـلَمْ يُـقَاتِلُوْا بِسِلاَحٍ وَلَـمْ يَـرْمُوْا بِسَهْمٍ قَالُوْا لَا إِلٰهَ إِلَّا اللهُ وَاللهُ أَكْبَـرُ ‏.‏ فَـيَسْقُطُ أَحَدُ جَانِبَـيْـهَا‏ ‏‏ قَالَ ثَـوْرٌ لَاَ أَعْلَمُهُ إِلَّا قَالَ الَّذِيْ فِي الْبَحْرِ ثُمَّ يَقُوْلُوْا الثَّانِيَةَ لَا إِلٰهَ إِلَّا اللهُ وَاللهُ أَكْبَـرُ.‏ فَيَسْقُطُ جَانِبُهَا الْاٰخَرُ ثُـمَّ يَقُوْلُوْا الثَّالِثَةَ لَا إِلٰهَ إِلَّا اللهُ وَاللهُ أَكْبَـرُ‏.‏ فَـيُـفَرَّجُ لَـهُمْ فَـيَدْخُلُوهَا فَـيَـغْنَمُوْا فَـبَـيْـنَمَا هُمْ يَـقْتَسِمُوْنَ الْمَغَانِـمَ إِذْ جَاءَهُمُ الصَّرِيْخُ فَـقَالَ إِنَّ الدَّجَّالَ قَدْ خَرَجَ‏.‏ فَـيَـتْـرُكُوْنَ كُلَّ شَىْءٍ وَيَـرْجِعُوْنَ‏.‏

অর্থ: হযরত আবূ হুরায়রা রদ্বিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু উনার থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, নিশ্চয়ই নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি ইরশাদ মুবারক করেন, তোমরা কি এরূপ একটি শহরের কথা শ্রবণ করেছ যার একদিক স্থল এবং অন্যদিক সমুদ্র? উনারা বললেন হ্যাঁ, ইয়া রসূলাল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম! নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনি বললেন, ক্বিয়ামত উপস্থিত হবেনা- যতক্ষণ (না) ৭০ সহস্র বনু ইছহাক (শামী মুছলমান) উক্ত শহরবাসীদের সাথে যুদ্ধ করেন, যখন উনারা উক্ত শহরের নিকট উপস্থিত হবেন, তার চতুর্দিকে অবতরণ করবেন। উনারা অস্ত্রশস্ত্র দ্বারা যুদ্ধ করবেন না এবং তীর নিক্ষেপ করবেন না, বরং উনারা বলবেন, লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবর, এতে তারা একদিক (রাবি ছওর ইবনে ইয়াযীদ বলেন, সমুদ্রের দিকস্থ প্রাচীর) ভেঙ্গে পড়বে। তারপরে উনারা উক্ত কালিমা দ্বিতীয় বার বলবেন, এতে তার দ্বিতীয় দিকের প্রাচীর পতিত হবে। তারপরে উনারা তৃতীয়বার উক্ত শব্দ বলবেন, এতে উনাদের জন্য তার দ্বার উম্মুক্ত করা হবে। উনারা উক্ত শহরের মধ্যে প্রবেশ করে যুদ্ধ সম্ভার সংগ্রহ করবেন। তারপরে উনারা সংগৃহীত দ্রব্যগুলি বণ্টন করতে থাকবেন, এমতাবস্থায় একজন ঘোষণাকারী উনাদের নিকট উপস্থিত হয়ে বলবে, নিশ্চয়ই ‘দাজ্জাল বের হয়েছে, তখন উনারা সমস্ত বস্তু ত্যাগ করে রওয়ানা হবেন। (মুসলিম শরীফ)

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র ইসলামী শরীয়ত উনার হুকুম মোতাবেক খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির। যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় (যেমন- কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি) তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩দিন। এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র ইসলামী শরীয়ত উনার হুকুম মোতাবেক খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির। যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় (যেমন- কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি) তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩দিন। এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র ইসলামী শরীয়ত উনার হুকুম মোতাবেক খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির। যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় (যেমন- কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি) তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩দিন। এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র ইসলামী শরীয়ত উনার হুকুম মোতাবেক খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির। যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় (যেমন- কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি) তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩দিন। এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড

খতমে নুবুওওয়াত প্রচার কেন্দ্র ইসলামী শরীয়ত উনার হুকুম মোতাবেক খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারীরা কাফির। যারা মুসলমান থেকে খতমে নুবুওওয়াত অস্বীকারকারী সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত হয় (যেমন- কাদিয়ানী, বাহাই ইত্যাদি) তাদের তওবার জন্য নির্ধারিত সময় ৩দিন। এরপর তওবা না করলে তাদের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড