তাফসীরুল কুরআন সুমহান সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনই সর্বশ্রেষ্ঠ আমল

সংখ্যা: ২৮২তম সংখ্যা | বিভাগ:

يَاۤ اَيُّهَا النَّاسُ قَدْ جَآءَتْكُمْ مَّوْعِظَةٌ مِّنْ رَّبِّكُمْ وَشِفَآءٌ لِّمَا فِىْ الصُّدُوْرِ وَهُدًى وَّرَحْمَةٌ لِّلْمُؤْمِنِيْنَ. قُلْ بِفَضْلِ اللهِ وَبِرَحْـمَتِهٖ فَبِذٰلِكَ فَلْيَفْرَحُوْا هُوَ خَيْرٌ مِّـمَّا يَـجْمَعُوْنَ

তরজমা: “হে মানুষেরা! তোমাদের মহাসম্মানিত রব তায়ালা উনার তরফ থেকে মহান নছীহতকারী, অন্তরের মহান আরোগ্য দানকারী, মহান হিদায়েত দানকারী এবং মু’মিনদের জন্য মহান রহমত দানকারী তোমাদের নিকট তাশরীফ মুবারক গ্রহণ করেছেন। (অতএব, আমার মহাসম্মানিত হাবীব ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম!) আপনি (উম্মতদেরকে) বলে দিন, মহান আল্লাহ পাক উনার মহাসম্মানিত ফদ্বল ও মহাসম্মানিত রহমত স¦রূপ আপনাকে যে তারা পেয়েছে, সেজন্য তাদের প্রতি কর্তব্য তথা ফরয হচ্ছে খুশি মুবারক প্রকাশ করা। এই খুশি মুবারক প্রকাশের ইবাদত হচ্ছে, তাদের সমস্ত ইবাদত অপেক্ষা উত্তম বা শ্রেষ্ঠ।” (পবিত্র সূরা ইউনুস শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ৫৭, ৫৮)

তাফসীর: মহাপবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন তথা ফালইয়াফরহূ বা খুশি মুবারক প্রকাশ করার মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে মহাসম্মানিত হাবীব, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন নাবিয়্যীন, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে নিসবত  মুবারক স্থাপন করা। সুবহানাল্লাহ!

স্মরণীয় যে, যিনি খ¦ালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক তিনি উনার মহাসম্মানিত হাবীব নূরে  মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর  পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে এমন গাঢ় ও নিগূঢ় নিসবত মুবারক স্থাপন করেছেন যে, উনাকে স্বীয়  কুদরত মুবারক উনার অন্তর্ভুক্ত করে নিয়েছেন এবং উনাকে হাবীবুল্লাহ হিসেবে গ্রহণ করে নিয়েছেন। এমনকি আপন যিকির ও ছানা-ছিফত মুবারকের সাথে উনার যিকির ও ছানা-ছিফত মুবারক সংযুক্ত করে দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, মহান আল্লাহ পাক তিনি নিজেই উনার মহাসম্মানিত  হাবীব নূরে  মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার শ্রেষ্ঠত্ব ও মর্যাদা মুবারক প্রকাশার্থে এবং ফালইয়াফরহূ শরীফ পালনার্থে উনার প্রতি দায়িমীভাবে ছলাত শরীফ পেশ করে যাচ্ছেন অর্থাৎ উনার প্রতি দুরূদ শরীফ পাঠ ও উনার পবিত্র ছানা-ছিফত মুবারক করে যাচ্ছেন। সুবহানাল্লাহ!

যেমন এ সম্পর্কে পবিত্র কুরআন শরীফ উনার মধ্যে ইরশাদ মুবারক হয়েছে-

إِنَّ اللهَ وَمَلَآئِكَتَهٗ يُصَلُّوْنَ عَلَى النَّبِيِّ

অর্থ: নিশ্চয়ই মহান আল্লাহ পাক তিনি এবং উনার সকল হযরত ফেরেশতা আলাইহিমুস সালাম উনারা মহাসম্মানিত রসূল নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি ছলাত শরীফ পেশ করেন। অর্থাৎ উনার প্রতি দুরূদ শরীফ পাঠ ও উনার পবিত্র ছানা ছিফত মুবারক করে যাচ্ছেন।

উক্ত পবিত্র আয়াত শরীফ উনার দ্বারা প্রতিভাত হয়েছে যে, মহাসম্মানিত হাবীব নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার সাথে নিসবত মুবারক স্থাপন করতে হলে, উনার ছানা-ছিফত মুবারক করতে হলে, উনার জন্য ফালইয়াফরহূ শরীফ তথা  মহাপবিত্র সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালন করতে হলে দায়িমীভাবে উনার প্রতি ছলাত শরীফ এবং পবিত্র সালাম মুবারক পেশ করতে হবে। এবং সাথে সাথে উনার পবিত্র ছানা-ছিফত মুবারকও করতে হবে। আর এ সম্মানিত আমল-ইবাদত করার জন্যই মহান আল্লাহ পাক তিনি ঈমানদার পুরুষ-মহিলা, ছোট-বড়, ছেলে-মেয়ে সকলকে আদেশ মুবারক করেছেন। যেমন মহান আল্লাহ পাক তিনি পবিত্র কুরআন শরীফ উনার  মধ্যে ইরশাদ মুবারক করেন-

يَاۤ أَيُّهَا الَّذِيْنَ اٰمَنُوا صَلُّوْا عَلَيْهِ وَسَلِّمُوْا تَسْلِيْمًا

অর্থ: হে ঈমানদাররা! মহাসম্মানিত রসূল, নূরে মুজাসসাম, হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনার প্রতি তোমরা ছলাত শরীফ পেশ করো এবং যথাযথ সম্মান প্রদর্শনপূর্বক সালাম মুবারক পেশ করো। এবং সাথে উনার পবিত্র ছানা-ছিফত মুবারকও করো। (পবিত্র সূরা আহযাব শরীফ: পবিত্র আয়াত শরীফ ৫৬)

বলার অপেক্ষা রাখে না, খ¦ালিক্ব মালিক রব মহান আল্লাহ পাক উনাকে স্মরণ করার জন্য যেমন বিশেষ ইবাদত হচ্ছে পবিত্র ছলাত (নামায) আদায় করা তেমনি মহাসম্মানিত হাবীব নূরে মুজাসসাম হাবীবুল্লাহ হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম উনাকে স্মরণ করার জন্য বিশেষ ইবাদত হচ্ছে উনার প্রতি ছলাত শরীফ ও সালাম মুবারক পেশ করা। সুবহানাল্লাহ!

যার কারণে আহলু বাইতি রসূলিল্লাহ ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সাইয়্যিদুনা মামদূহ হযরত মুর্শিদ আলাইহিস সালাম তিনি পাঁচ ওয়াক্ত নামাযের পর পবিত্র মীলাদ শরীফ ও পবিত্র ক্বিয়াম শরীফ মুবারক আমল জারী করেছেন। সুবহানাল্লাহি ওয়া রসূলিহী ওয়া আহলি বাইতিহী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। আরো জারি করেছেন প্রতি  মাসে সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আ’দাদ শরীফ অর্থাৎ মহাপবিত্র ছানী আশার শরীফ মহাপবিত্র ১২ই শরীফ উপলক্ষে কোটি কোটি কণ্ঠে পবিত্র মীলাদ শরীফ মহাসম্মানিত সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ  মাহফিল। এবং প্রতি সপ্তাহে মহাসম্মানিত সাইয়্যিদুল সাইয়্যিদিল আইয়্যাম শরীফ পবিত্র ইয়াওমুল ইছনাইনিল আযীম শরীফ উপলক্ষে সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ মাহফিল।

এছাড়া প্রতিদিন মহাসম্মানিত সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আওক্বাত শরীফ সম্মানিত ছুবহি  ছাদিক্ব শরীফ উপলক্ষে মহাসম্মানিত ফালইয়াফরহূ তথা মহাসম্মানিত সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ  পবিত্র মীলাদ শরীফ মাহফিল।

উক্ত সকল মহাসম্মানিত মাহফিল উপলক্ষে সর্বোত্তম তবারুক  মুবারকের ব্যবস্থা করেন এবং ব্যবস্থা করার  জন্য সকলকে আদেশ  মুবারক করেন। সুবহানাল্লাহি ওয়া রসূলিহী ওয়া আহলি বাইতিহী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম।

তাফসীরুল কুরআন সুমহান সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনই সর্বশ্রেষ্ঠ আমল

তাফসীরুল কুরআন সুমহান সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনই সর্বশ্রেষ্ঠ আমল

তাফসীরুল কুরআন: সুমহান সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনই সর্বশ্রেষ্ঠ আমল

তাফসীরুল কুরআন সুমহান সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনই সর্বশ্রেষ্ঠ আমল

তাফসীরুল কুরআন সুমহান সাইয়্যিদুল আ’ইয়াদ শরীফ পালনই সর্বশ্রেষ্ঠ আমল