বিশ্ব সমাদৃত, হযরত আওলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিমগণের অনুপম মুবারক চরিত গ্রন্থ আখবারুল আখইয়ার-১৫০ মূলঃ হযরত শায়খ আব্দুল হক মুহাদ্দিছে দেহলভী রহমতুল্লাহি আলাইহি,

সংখ্যা: ১৯১তম সংখ্যা | বিভাগ:

ভাষান্তরঃ মাওলানা মুহম্মদ ফযলুল হক

হযরত শায়খ শরফুদ্দীন আহমদ রহমতুল্লাহি আলাইহি ৬৮৫-৭৫৬হি:

পূর্ব প্রকাশিতের পর

হযরত শায়খ হুসাইন রহমতুল্লাহি আলাইহি-এর কতিপয় বন্ধুদের উনার দরবার শরীফ-এর তর্জ-তরীকা সম্পর্কে জানা ছিল। উনার সেই সকল তর্জ-তরীকার মূল হাক্বীক্বত ছিল দুনিয়াবী খাহেশাত-এর বিরোধিতা করা ও উখরোবী বা পরকালীন কার্যাবলীর পূর্ণতা হাসিলে মশগুল থাকা। অন্য অর্থে উহাকে যিকরুল্লাহ ও ইয়াদে ইলাহী বলে; যা মহান আল্লাহ পাক-এর নৈকট্য লাভের জন্য নির্ধারিত ও সাহায্যকারী।

কতিপয় শে’র:

إِنَّ اللّٰهَ وَمَلائِكَتَهٗ يُصَلُّوْنَ عَلَى النَّبِىِّ يٰاَيُّهَا الَّذِينَ اٰمَنُوْا صَلُّوْا عَلَيْهِ وَسَلِّمُوا تَسْلِيْمًا کافر نفست چوں زبون شد+ گر ہمہ کفرے ہمہ ایمان شدےدمے کہ باتو برأرم سعادت ابد ست+ شبے کہ بے تو گزارم مراچہ روز بداتست  اوصاف ذمیمہ چو بدل شد+ ہر عقدہ کہ در تو بود حل شد

অর্থ: তোমার অবাধ্য অন্তর যখন ফরমাবরদার হয়ে যায় তখন সমস্ত কুফরী বিষয়াবলী ঈমানী বিষয় দ্বারা পরিপূর্ণ হয়ে যায়। আপনার মুবারক স্মরণে সামান্য সময় অতিবাহিত করা সারা জীবনের জন্য সৌভাগ্যশীল হওয়ার নামান্তর। আপনার স্মরণ ব্যতীত একরাতও অতিবাহিত করা বদবখ্তী। যখন আমার ছিফতসমূহ পরিবর্তন হয়ে যায় তখন সমস্ত বালা মুছীবতও দূর হয়ে যায়।’

ছুফীয়ানে কিরামগণের সমস্ত ইলম এই তিনটি শে’র-এর মধ্যে বিদ্যমান রয়েছে। যদি নেক লোকের সঙ্গী হয় এবং মানুষ আরব জাহানে ছফর করে তবে উহা তার জন্য শত সহস্র বরকতের কারণ। ইশক ও মুহব্বতপূর্ণ অবস্থায় ছফরের ক্লান্তির আধিক্যতাকেও আয়ত্ব করা সহজতর ও নিরাপদ হয়ে থাকে।

মহান আল্লাহ পাক-এর বিধানাবলীর এ’লান বা ঘোষণা হচ্ছে-

ما منعك عن الحق فهو طاغوطك

যে জিনিস তোমাকে হক্ব পথ থেকে বিরত রাখে সেটাই তোমার জন্য ত্বাগুত বা শয়তান।

আমি ইহা লিখে সমস্ত বন্ধুদেরকে দিয়ে আল্লাহ পাক-এর প্রতি সোপর্দ করলাম। আর তা হচ্ছে-

ان خير  الزاد التقوى وكفى بالله حسيبا

নিশ্চয়ই উত্তম পাথেয় হচ্ছে তাক্বওয়া, মহান আল্লাহ পাক হিসাবগ্রহণকারী হিসেবে যথেষ্ট।

শে’র-

گرخیل وسپاہ حسبی اللہ+ درپیشت پناہ ربی اللہ والسلام

যদি ঘোড়া ও সৈন্য থাকে তাতেই যথেষ্ট আর মহান আল্লাহ পাকই হচ্ছেন সঠিক মদদগার।

তিনি আরো বলেছেন, আমি আমার শায়খ থেকে শুনেছি তিনি হিজাজে অবস্থানকালীন সময় বলেছিলেন, হিন্দুস্থানে কোন মরদে খোদা নেই। আমি আরয করলাম: দুনিয়াতেই এমন কোন স্থান নেই যেখানে কোন আল্লাহওয়ালা লোক নেই। কেননা আল্লাহওয়ালা লোকদের ওসীলাতেই সমস্ত স্থান আবাদ ও স্থায়ী হয়ে থাকে। তখন শায়খ রহমতুল্লাহি আলাইহি বললেন: সত্যই বলেছেন; তবে আপনার একটু ভুল হয়েছে। তা হচ্ছে- যাদের ওসীলায় দুনিয়া টিকে আছে তাঁরা হচ্ছেন মরদে ছালিহ্। উনাদের অস্তিত্ব অবশ্যই পৃথিবীতে রয়েছে। কিন্তু আমার মরদে খোদা বলা দ্বারা অন্য কিছু উদ্দেশ্য।

হিন্দুস্থানে যদি (এ সময়) কোন হাক্বীক্বী আল্লাহওয়ালা লোকের সন্ধান পেতাম তবে আমি উনার খিদমতেই মশগুল হয়ে যেতাম।

মাকতূব: হক্ব তালাশীদের জন্য তিনটি মূলনীতি অনুসরণ করা আবশ্যক। ১. সর্বদা ক্ষুধার্ত থাকা। রোযা অবস্থায় হোক অথবা রোযা ছাড়া হোক সর্বদা ক্ষুধার্ত থাকা। ইহা এমন একটি মূলনীতি যার উপর অন্যান্য মূলনীতি নির্ভরশীল। এর মত গুরুত্বপূর্ণ মূলনীতি আর নেই। সুলূকের পথের কামিয়াবী ক্ষুধার্ত থাকার উপরই নির্ভরশীল। সেজন্যই উহা থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয়া অনুচিত। জওক্ব ও শওক্ব এর বুনিয়াদ ও ক্ষুধার্ত থাকার উপর নির্ভরশীল। যে ব্যক্তির শক্তি রয়েছে সে যদি রোযা না রাখে তবেও সে ক্ষুধার্ত থাকবে আর যে ব্যক্তি দুর্বল সেও ক্ষুধার্ত থাকার উদ্দেশ্যে প্রয়োজনে রোযা রাখবে। মূল কথা হলো কল্যাণকর সমস্ত পথই ক্ষুধার্ত থাকার উপরে নির্ভরশীল। ২. সর্বদা আন্তরিকতার সাথে আল্লাহ পাক-এর ইবাদতে মশগুল থাকা আবশ্যক। ৩. অপ্রাসঙ্গিক কথাবার্তা ছেড়ে দেয়া।

এ তিনটি জিনিস সকল নবী রসূল আলাইহিমুস্ সালাম ও আওলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিমগণের আদত ছিল। এই তিনটি জিনিস দ্বারাই ইবাদতের জওক্ব তৈরি হয়। এর মাধ্যমেই নফস ও শয়তান তার থেকে ভেগে যায় ও পথভ্রষ্ট হয়। এমনকি যে ব্যক্তি এ তিনটি বিষয় অর্জন করতে পেরেছেন তিনি শয়তানেরও অন্য সর্বপ্রকার ওয়াসওয়াসা থেকে হিফাযত থাকবেন। কেননা এ তিনটি জিনিসের সাথেই মহান আল্লাহ পাক-এর ফযল, করম ও দয়া নির্ভরশীল। (চলবে)

বিশ্ব সমাদৃত, হযরত আওলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিমগণের অনুপম মুবারক চরিত গ্রন্থ আখবারুল আখইয়ার-১৪৩

বিশ্ব সমাদৃত, হযরত আওলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিমগণের অনুপম মুবারক চরিত গ্রন্থ আখবারুল আখইয়ার-১৪৪

বিশ্ব সমাদৃত, হযরত আওলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিমগণের অনুপম মুবারক চরিত গ্রন্থ আখবারুল আখইয়ার-১৪৫

বিশ্ব সমাদৃত, হযরত আওলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিমগণের অনুপম মুবারক চরিত গ্রন্থ আখবারুল আখইয়ার-১৪৬

বিশ্ব সমাদৃত, হযরত আওলিয়ায়ে কিরাম রহমতুল্লাহি আলাইহিমগণের অনুপম মুবারক চরিত গ্রন্থ আখবারুল আখইয়ার-১৪৭