হযরত আহলে বাইত শরীফ আলাইহিমুস সালাম উনাদের মকবুলে মাসিক আল বাইয়্যিনাত শরীফ রহেন উজ্জ্বলে-১৭৭

সংখ্যা: ২৯৪তম সংখ্যা | বিভাগ:

সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আ’ইয়াদ শরীফ রব্বানী আলামত,

উহা খ্বালিক মালিক আল্লাহ পাক উনার রহমতী শরাফত।

ওই আল কালামী প্রতিটি আয়াতে হাত ছানি দিয়ে ডাকে,

এসো হে মু’মিন তড়িৎ গতিতে কুরআনী আখলাক্বে।

সেই সে মু’মিন রাখছে অধীন তোহফায়ে রহমান,

সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আ’ইয়াদ শরীফ-ই নূরময় আবাদান।

রব ও রসূলী তোহফাগুলি লও লুফে মুসলিম,

কেবল স্রষ্টা দয়ালু দানেন তোমায় সহসা অপরিসীম।

ওই সাইয়্যিদু সাইয়্যিদিল আ’ইয়াদ শরীফ ফযীলতে,

রয় মুসলিম জাতি বিশ্বপতি, নেই দ্বিধা কভু এতে।

নেই অবকাশ খুলো ইতিহাস দেখো হে সমঝদার,

ক্বায়িম ক্বওমে মু’মিন ছুড়ে গমগিন, খিলাফাত অভিষার।

দেখ, এদেশ বিদেশ বিশ্ব আবেশ জাকজমকের সাথে,

মু’মিন তামাম রহে সফলকাম প্রতিটি সত্যপথে।

রহে ঐকতানের কঠিন বাঁধনে যবেগো মুসলমান,

বিজয় তাহার রহে ক্বারিবান ধরা দিল সমাধান।

তবে কেন আজ গ্রহিতেছে কাফিরের কর্কশে,

গুজরাই দিন হয়ে হায় হীন কুফরীর নির্দেশ।

করহে ফিকির ওরে ও আমির কেন রহ কোনঠাসা,

কেন যে কাফির নিচ্ছে কেড়েই ঈমানের ভালবাসা।

চেয়ে দেখ আজ পৃথিবীর সব উচ্চ বিলাসি দেশে,

ওই মুলকে আরব, ব্রুনাই মালয় পাক আফগানে ঘোষে।

আহা ভোগ বিলাসের লাস্যো বিনাসে আপনারে বেশুমার,

আহা কাফিরদের তারা ভাবছে বন্ধু পেতে চাহে অধিকার।

তাই এহেন সুযোগে রাখছে বিয়োগে কাফিরেরা মুসলিম,

ঈমানের গোড়া ফেলিল যে কেটে খাওয়ায়ে তিত আফিম।

হায় হায় ওই গেল আহা কই ঈমানী সৌর্য খানি,

কেন পরছে লুটায়ে তাগুতীর ঘায়ে লয় গ্রহে মিসকিনী।

দেখুন দুবাই কাতার কুয়েত ইয়েমেন ইরান লিবিয়া আর,

তুরস্ক, সৌদি মিশর, লেবাননসহ মুলকে ঈমানদার।

দেখি সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম জাতি জগতটা রয় জুড়ে,

হায়, কিন্তু যে তারা রহে দিশেহারা তাগুতি তোয়াজ করে।

ওই বাইশ মুসিলিমী দেশ মধ্য প্রাচ্যের প্রাচুর্যতার মধ্যমণি,

হেরি সুখ স্বর্গেই গুজরায় তারা আয়েশী যিন্দেগানী।

তারা কঠিন মিসকীন ঈমানী বেলায় সত্যটা লিখিলাম,

তারা ইহুদী নাছারা মুশরিকি ডরে কম্পিত অবিরাম।

ওই ছোট্ট একটি ইহুদী বসতি মুলকে আরবী মধ্যখানে,

পিচাষ আর ধূর্ত কায়ায় সেথা যে অবস্থানে।

তার সারি সারি দালালে ভরা মুসলিমী অনেক দেশ,

ইহাই সত্য কহিনা মিথ্যা ইতিহাস করি পেশ।

আজ ইসরাইল নামক ইহুদী সন্ত্রাসী হানাদার হয়ে হায়,

তারা মুসলমানদের মেরেই চলছে ফিলিস্তিনি গনগায়।

আহা বর্বরতার গেরাকলে ফেলে করছে নির্যাতন,

ঝারে ইহা দেখে সব মুসলিম দেশ মিথ্যা আস্ফালন।

দেয় খেকশিয়াল ন্যায় নিজ দেশ থেকে দায়শারা হুঙ্কার,

ওদিকে ইসরাইল মারে বোম ও মিসাইল, ফিলিস্তিন অস্থির।

ওই চৌদিকে সব মুসলিমী দেশ রহে বেশ নির্বাক,

তারা ইঙ্গ মার্কিনী ক্বদমে ঝুকছে সমঝতায় ঝাকে ঝাক।

শত ধিক্কার ওই কমজোরী সব মুসলিমী নেতাদের,

তাগুতী ত্রাসে রহে রহে খসে, সৌর্য হারায়ে ফের।

ফিলিস্তিনি সাহায্যে, আসেনা এগিয়ে মার্কিনী শঙ্কায়,

আহা এহেন কঠিন নাজুকে রহিছে মুসলিম দুনিয়ায়।

কহি কুরআনী শুভসংবাদ, হাদীছি সঠিক বাণি,

শুনরে এহেন নিদানে, এলেন ভূবনে, ইমামে মুসলমানী।

তিনি মুজাদ্দিদে আ’যম ইমামুল উমাম সুলত্বানুন নাছীরি বীর,

তিনি তামাম বাতিলী তাগুতী ক্রিয়া করে দেন চৌচির।

হাক্বীক্বী রহমাতুল্লিল আলামীন হয়ে ভূবনে তাশরীফান,

তিনি জাব্বারিউল আউওয়াল ক্বউইয়্যুল আউওয়াল হক্কানী ইহসান।

তিনি দশম খলীফা হয়েই জগতে স্বয়ং প্রকাশমান,

সবাই খালিছ হৃদয়ে করহে ইয়াক্বীন বিশ্ব মুসলমান।

ছাহিবে সাইয়্যিদি সাইয়্যিদিল আ’ইয়াদ শরীফ জীবন্ত আবাদান,

তিনি রাখছেন জারি অনন্ত সময়ে কায়িনাতে মহিয়ান।

শত শত বড় বড় পশু, করেন কুরবানী বিরলের ভুমিকায়,

লাখো মেহমান তিনি যে খাওয়ান ইশকে হাবীবী দরগায়।

বিশ্বকবি মুহম্মদ মুফাজ্জলুর রহমান

আল বাইয়্যিনাত-এর দলীলের বলে, মুনাফিক গংদের হাক্বীক্বত গেল খুলে  ৯৫

আল বাইয়্যিনাত-এর দলীলের বলে, মুনাফিক গংদের হাক্বীক্বত গেল খুলে  ৯৬

আল বাইয়্যিনাত-এর দলীলের বলে, মুনাফিক গংদের হাক্বীক্বত গেল খুলে  ৯৭

আল বাইয়্যিনাত-এর দলীলের বলে, মুনাফিক গংদের হাক্বীক্বত গেল খুলে  ৯৮

আল বাইয়্যিনাত-এর দলীলের বলে, মুনাফিক গংদের হাক্বীক্বত গেল খুলে  ৯৯