মুজাদ্দিদে আ’যম উনার রোব: ভ্যাটিকান স্বীকার করলো ইসলামের মাহাত্ম্য ও শ্রেষ্ঠত্ব এবং সত্যতা। প্রকাশ করলো “পাপের ভারে বিপর্যস্ত পাদ্রীদের বিকৃত চরিত্রহীনতা।” চার্চের প্রতি আস্থা হারানো খ্রিস্টানরা কি এরপরও আস্থা রাখবে খ্রিস্টধর্মের উপর? (৩)

সংখ্যা: ১৯৯তম সংখ্যা | বিভাগ:

[সাধারণ মুসলমানের মনে খ্রিস্টান হিন্দু সম্পর্কে একটা প্রচ্ছন্ন ধারণা রয়েছে যে- খ্রিস্টান মাত্রই মদ খায়, চরিত্রহীন। হিন্দুরাও অবাধে অশ্লীলতায় ভাসে। কিন্তু এর পেছনে মূলত কারণটা কি?

সাধারণ মানুষ সে প্রশ্নেও জর্জরিত হয়নি। উত্তরও খুঁজে নেয়নি।

জলীলুল ক্বদর রসূল হযরত ঈসা আলাইহিস সালাম উনাকে খ্রিস্টানরা যীশু খ্রিস্ট বলে। যীশুর নামে তারা বুকে ক্রুশ রাখে। কিন্তু এই যীশুরই প্রচুর নগ্ন ছবি তারা এঁকেছে। প্রকাশ করেছে। তাদের অনেকের রচনায়ই শুধু অশ্লীলভাবে প্রকাশ নয় এমনকি যীশুকে সমকামী বানিয়ে তারা অনেক সিনেমাও তৈরি করেছে। নাঊযুবিল্লাহ!

এবং আশ্চর্য হলেও সত্যি তাতে খ্রিস্টান দেশে দেশে কোনো প্রতিবাদ উঠেনি। সমালোচনার  ঝড় উঠেনি। বিস্ফোরণ হয়নি।

এমনকি খোদ পোপরাও কোনো উচ্চ-বাচ্চ্য করেনি। আর এখানেই খ্রিস্টান মাত্রই চরিত্রহীন ও মাতাল হওয়ার কারণটা খুঁজে বের করা সহজ হয়।

অর্থাৎ কিনা নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের সম্পর্কে খ্রিস্টানদের আক্বীদা খুবই খারাপ। আর যেহেতু নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনাদের সম্পর্কে তাদের আক্বীদা খারাপ সেহেতু তাদের আমলও অনিবার্যভাবে খারাপ অর্থাৎ তারা যখন বিশ্বাস করে নবী-রসূল আলাইহিমুস সালাম উনারা ভুল করেছেন নাঊযুবিল্লাহ! পাপ করেছেন। নাঊযুবিল্লাহ!

তখন তারাও আর পাপ করতে কুণ্ঠাবোধ করে না। দ্বিধা করে না, ভয় করে না। পাপ থেকে বিরত থাকার উৎসাহ পায় না।

বলাবাহুল্য, বাইবেলে নবী আলাইহিমুস সালামগণ উনাদের সম্পর্কে চরিত্রহীনতা মাতলামিসহ বহু অপবাদ দেয়া হয়েছে। আর মূলত সে কারণেই খ্রিস্টানরা জš§গতভাবে এসব পাপাচারে মগ্ন থাকে। নাঊযুবিল্লাহ। এবং এটা এখন এতই ব্যাপকতা লাভ করেছে যে খোদ পোপরা পর্যন্ত একে একে সবাই শুধু ব্যভিচার নয় সমকামিতার মত জঘন্য পাপাচারে রীতিমত ভয়াবহ আসক্ত ও নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। নাঊযুবিল্লাহ!

উল্লেখ্য, পাদ্রীদের এ তাছির এখন সাধারণ খ্রিস্টানদের মাঝেও ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। আগস্টের প্রথম সপ্তাহে চিলিতে সমকামী বিয়ের আইনি বৈধতা দেওয়ার জন্য কংগ্রেসে বিল উত্থাপন করেছে দেশটির স্যোশালিস্ট পার্টির প্রধান ফুলভিও রোসি। পাশ্ববর্তী দেশ আর্জেন্টিনায় গত মাসে সমকামী বিয়ের আইনি বৈধতা ঘোষণা দেয়া হয়েছে। চিলির কার্ডিনাল ফ্রান্সিসকো জেভিয়ার ইরাজুরিজ আর্জেন্টিনায় সমলিঙ্গের মধ্যে বিয়ের আইনি সমর্থনকে বিপথগামিতা বলে আখ্যা দিয়েছেন।

কার্ডিনালের এ বক্তব্যের জবাবে সিনেটর রোসি বলেন, সমকামী বিয়েকে একটি প্রকল্প হিসেবে আমি উপস্থাপন করবো এবং এ ব্যাপারটিকে স্বাগত জানানোর জন্য আমি গির্জাকেও আহবান জানাচ্ছি।

বলাবাহুল্য, গির্জা এখন নিজেই এ ঘৃণ্য কাজে মত্ত। নাঊযুবিল্লাহ! তারা বরং আরো পশুসুলভ মনোবৃত্তির। তারা গির্জায় আশ্রয় নেয়া বালকদের বালাৎকার করে থাকে। নাঊযুবিল্লাহ!

মূলত রোমান ক্যাথলিক ধর্মযাজকদের বিরুদ্ধে চার্চের শিশুদের উপর যৌন নিপীড়নের অভিযোগ নতুন কোনো ঘটনা নয়। যদিও চার্চের যাজকদের এসব কুকর্মের খতিয়ান ইহুদী-খ্রিস্টান নিয়ন্ত্রিত মিডিয়ায় খুব কমই প্রকাশ হয়ে থাকে।]

পাদ্রিদের পাপাচারে পিষ্ট পৃথিবী

যাজকদের যৌন নিপীড়নের শিকার লোকজনের কাছে আবারও ক্ষমা চেয়েছেন পোপ ষোড়শ বেনেডিক্ট। ভবিষ্যতে আর কোনো শিশু যাতে এমন বর্বরতার মুখোমুখি না হয়, তার জন্য সম্ভাব্য সবকিছু করার প্রতিশ্রম্নতিও দিয়েছেন তিনি। গত ১১ জুন ২০১০ শুক্রবার ভ্যাটিকান সিটির সেন্ট পিটারস স্কয়ারে ভ্যাটিকানস ইয়ার অব দ্য প্রিস্ট-এর সমাপনীতে তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে ১৫ হাজার যাজক উপস্থিত ছিলেন।

কয়েক মাস আগে বিভিন্ন দেশে যাজকদের হাতে শিশুদের যৌন নিপীড়নের ঘটনা প্রকাশ হয়ে পড়ায় বিশ্বব্যাপী তীব্র সমালোচনা শুরু হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে পোপ যাজকদের কর্মকাণ্ডের জন্য ক্ষমা চাওয়াসহ ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে না হয় তারও প্রতিশ্রুতি দেন। যুক্তরাষ্ট্র, অস্টে্রলিয়া ও মাল্টায় বেশ কয়েকজন নিপীড়িতের সঙ্গে দেখা করে তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন। যাজকদের যৌন কেলেঙ্কারীকে বাইরের কোনো চার্চবিরোধী গোষ্ঠীর প্রচারণার কথা নাকচ করে তিনি চার্চের অভ্যন্তরের পাপ অভিহিত করে এর দায় স্বীকার করেন। পোপ তাঁর ধর্মোপদেশমূলক বক্তৃতায় যাজকদের উদ্দেশে বলেন, যারা যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে তাদের কাছে এবং ঈশ্বরের কাছে আমরা সনির্বন্ধভাবে ক্ষমা প্রার্থনা করি। এ রকম ঘটনা যাতে আর কখনো না ঘটে তার জন্য আমরা সম্ভাব্য সব কিছু করব। তবে সমালোচকরা পোপের বক্তব্যে হতাশা প্রকাশ করেছেন। তাঁরা মনে করেন, অভিযুক্তদের ব্যাপারে পোপের আরো শক্ত ভূমিকা নেওয়া দরকার। সূত্র: এপি, রয়টার্স। রোমান ক্যাথলিক ধর্মযাজকদের বিরুদ্ধে চার্চের শিশুদের ওপর যৌন নিপীড়নের অভিযোগ নতুন কোনো ঘটনা নয়। তবে নতুনত্ব হলো চার্চের যাজকদের এই সব কুকর্মের খতিয়ান প্রভাবশালী গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়ে পড়ার ঘটনা।

শিশু নির্যাতনের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে কানাডার রোমান ক্যাথলিক চার্চ বেকায়দায়

কানাডার কয়েকজন পাদ্রী এবং নোভা স্কোটিয়ার একজন বিশপ শিশু নির্যাতনের ঘটনায় জড়িত রয়েছে বলে তথ্য প্রকাশিত হওয়ার পর সেখানকার রোমান ক্যাথলিক চার্চ বেশ বেকায়দায় পড়েছে। ১৯৫০ সাল থেকে নোভা স্কোটিয়ার ক্যাথলিক পাদ্রীরা শিশু নির্যাতনের ঘটনার সাথে জড়িত রয়েছে বলে অভিযোগ শোনা যায়। তাদের হাতে এ পর্যন্ত ৩৯ জন শিশু যৌনভাবে নির্যাতিত হয়েছে বলে মনে করা হয়। অটোয়ায় পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করার পর নোভা স্কোটিয়ার বিশপ রেমন্ড লাহি ৯ হাজার ডলারে জামিনে ছাড়া পেয়েছেন। তার বিরুদ্ধে শিশুদের পর্ণো ছবি রাখার এবং এ ধরণের ছবি আমদানী করার অভিযোগ রয়েছে। তবে এই বিশপ নির্যাতনের শিকার শিশুদেরকে প্রায় দেড় কোটি ডলার সমপরিমাণ অর্থ প্রদান করে আপোস রফা করেছেন বলে জানা গেছে। ডেভিড মার্টিন নামের নির্যাতনের শিকার এক ব্যক্তি এর আগে আত্মহত্যা করেছে এবং আত্মহত্যা করার আগে একটি পত্রে বিশপ রেমন্ড লাহির কু-কর্ম ফাঁস করে দিয়েছেন। আর এই ঘটনার মধ্য দিয়ে বিশপ লাহির মুখোশ উন্মোচিত হয়ে যায় এবং পরে ডেভিডের ভাই রোনাল্ড মার্টিন নির্যাতনে জড়িত একজন পাদ্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলে রোমান ক্যাথলিক পাদ্রীদের কুকীর্তি ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয়।

ক্যাথলিক পাদ্রীদের দ্বারা শিশু নির্যাতনের ঘটনা নিয়ে ইউরোপ ও আমেরিকায় সমালোচনার ঝড় বইছে। ভ্যাটিকান বছরে পর বছর ধরে এ ধরণের অভিযোগ ধামাচাপা দিয়ে রেখেছে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে

নিউজ বিএনএ,ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক, ০২ জুলাই-১০: অষ্টে্রলিয়ায় শিশুদের সাথে যৌন কেলেংকারীর দায়ে ক্যাথলিক এক পাদ্রীকে প্রায় ২০ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। জন সিডনি ডেনহাম নামের ৬৭ বছর বয়সী এই পাদ্রীকে প্রায় দুই দশক ধরে ২৫ জন শিশুর উপর যৌন নির্যাতন চালানোর দায়ে শুক্রবার সিডনির একটি আদালত ১৯ বছর ১০ মাসের কারাদণ্ড দেয়।

ইরনা জানায়, পাদ্রী ডেনহামের বিরুদ্ধে ১৯৬৮ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত সিডনি ও সাউথ ওয়েলসে চার্চ পরিচালিত স্কুল গুলিতে ৫ থেকে ১৬ বছর বয়সী শিশুদের উপর যৌন নির্যাতন চালানোর অভিযোগ আনা হয়েছে এবং তিনি আদালতে দোষ স্বীকার করেছেন। সিডনির আদালতের বিচারক হেলেন সাইমি এই পাদ্রীর কোনো কোনো অপরাধকে পশুসুলভ বলে মন্তব্য করেছেন।

বিচারক আরো বলেছেন, অভিযুক্ত ব্যক্তি ভয়-ভীতি দেখিয়ে তার অপরাধ তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে এবং বছরের পর বছর ধরে এ সব অপরাধ ধামাচাপা দিয়ে রাখা হয়েছে। ২০০৮ সালে অষ্টে্রলিয়া সফরের সময় পোপ ষোড়শ বেনেডিক্ট পাদ্রী ডেনহাম কর্তৃক নির্যাতিত অনেককেই সাক্ষ্য দিয়েছেন এবং এমন ন্যাক্কারজনক শিশু নির্যাতনের ঘটনার জন্য তিনি প্রকাশ্য ক্ষমা চেয়েছিলেন। ক্যাথলিক পাদ্রীদের দ্বারা শিশু নির্যাতনের ঘটনা নিয়ে ইউরোপ ও আমেরিকায় সমালোচনার ঝড় বইছে। ভ্যাটিকান বছরে পর বছর ধরে এ ধরণের অভিযোগ ধামাচাপা দিয়ে রেখেছে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে। (ইনশাআল্লাহ চলবে)

-মুহম্মদ ওলীউল্লাহ

যুগের আবূ জাহিল, মুনাফিক ও দাজ্জালে কায্যাবদের বিরোধিতাই প্রমাণ করে যে, রাজারবাগ শরীফ-এর হযরত মুর্শিদ ক্বিবলা মুদ্দা জিল্লুহুল আলী হক্ব। খারিজীপন্থী ওহাবীদের মিথ্যা অপপ্রচারের দাঁতভাঙ্গা জবাব-৬৬

ভ্রান্ত ওহাবী মতবাদ প্রচারের নেপথ্যে-১৫

চাঁদ দেখা ও নতুন চন্দ্রতারিখ নিয়ে প্রাসঙ্গিক আলোচনা-৩৪

বাতিল ফিরক্বা ওহাবীদের অখ্যাত মুখপত্র আল কাওসারের মিথ্যাচারিতার জবাব-২৪ হাদীছ জালিয়াতী, ইবারত কারচুপি ও কিতাব নকল করা ওহাবীদেরই জন্মগত বদ অভ্যাস ওহাবী ফিরক্বাসহ সবগুলো বাতিল ফিরক্বা ইহুদী-নাছারাদের আবিষ্কার! তাদের এক নম্বর দালাল

উম্মুল মু’মিনীন হযরত ছিদ্দীক্বা আলাইহাস সালাম উনার মানহানি করার জন্য আন্তর্জাতিক ইসলাম বিদ্বেষী চক্র ‘জুয়েল অব মদিনা’ অপন্যাসের অপপ্রয়াস চালিয়েছে বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে বিষোদগার করেছে  আর উম্মুল মু’মিনীন হযরত কুবরা আলাইহাস সালাম উনার মানহানি করার প্রেক্ষাপট তারা এদেশেই রচনার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে  ‘ঘরজামাই’ সুন্নতী চেতনার মানহানি করার অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছে। নাঊযুবিল্লাহ!